দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিধানসভার অধিবেশন ডাকার দাবিতে রাজভবনের সামনে ধর্নায় রাজস্থানের কং বিধায়করা

বিধানসভার অধিবেশন ডাকার দাবিতে রাজভবনের সামনে ধর্নায় রাজস্থানের কং বিধায়করা

যতক্ষণ না পর্যন্ত বিধানসভা অধিবেশনের দাবি রাজ্যপাল গ্রহণ করছেন, ততক্ষণ পর্যন্ত তাঁরা এই অবস্থান চালিয়ে যাবেন।

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি: রাজস্থানের রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবার বোধহয় সিনেমাকেও হার মানিয়ে ফেলবে। শুক্রবার রাজস্থানের কংগ্রেস বিধায়করা রাজভবনে পৌঁছন। সেখানে গিয়ে তাঁরা রাজ্যপালকে অনুরোধ করেন দ্রুত বিধানসভার অধিবেশন ডাকতে। মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলতের সঙ্গে তাঁর শিবিরের বিধায়করা এদিন বাসে করে পৌঁছন জয়পুরের রাজভবনে, কিন্তু গেহলত শিবিরকে অধিবেশন ডাকার বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলেননি রাজ্যপাল। এদিন সকালেই অবশ্য অশোক গেহলত তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। তিনি মন্তব্য করেছেন, উপরমহলের চাপেই বিধানসভার অধিবেশন ডাকতে দেরি করছেন রাজ্যপাল।

এত কিছুর পরেও রাজ্যপাল যখন অধিবেশন ডাকা বিষয়ে নতুন করে কোনও ইঙ্গিত দেননি, তখনই রাজভবনের সামনে ধর্নায় বসার সিদ্ধান্ত নেন কংগ্রেসের বিধায়করা। তাঁরা রাজভবনের মূল দ্বারের সামনেই ধর্নায় বসে পড়েন। চলতে থাকে স্লোগান দেওয়া। শেষে রাজ্যপাল ভবনের ভিতর থেকে স্লোগান দেওয়া নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করলে অশোক গেহলত তাঁর বিধায়কদের নির্দেশ দেন স্লোগান ছাড়াই বসে থাকতে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি এও ঘোষণা করে দেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত বিধানসভা অধিবেশনের দাবি রাজ্যপাল গ্রহণ করছেন, ততক্ষণ পর্যন্ত তাঁরা এই অবস্থান চালিয়ে যাবেন। আগেই অশোক গেহলত জানিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁরা চান যেন সোমবার থেকে বিধানসভার অধিবেশন শুরু করা হয়।

এদিকে অবস্থান চলার মধ্যেই রাজস্থানের বিরোধী দলের নেতা গুলাবচাঁদ কাটারিয়া বলেন, অতি দ্রুত রাজভবনে কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানো উচিত। না হলে নিরাপত্তার সমস্যা হতে পারে। আর রাজ্য পুলিশকে তিনি ভরসা করেন না বলেও জানিয়ে দেন। এছাড়া, রাজভবনে বসে স্লোগান তোলার বিষয় নিয়েও গেহলতকে কটাক্ষ করেন তিনি। বলেন, কোনও মুখ্যমন্ত্রী এমন করে রাজভবনের সামনে বসে স্লোগান তুলতে পারেন, এটা ভাবা যায় না। অশোক গেহলতের ব্যবহার নিয়ে মুখ খুলেছেন সচিন পাইলটও। তিনি বলেছেন, অশোক গেহলতের মন্তব্য নিয়ে তিনি অত্যন্ত দুঃখিত। তিনি কোনওদিন কংগ্রেসের বিরুদ্ধে কিছু বলেননি, তাও তাঁকে এসব কথা বলা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর তিনি এ নিয়ে বিস্তারিত কথা বলবেন বলেও জানিয়েছেন।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: July 24, 2020, 5:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर