corona virus btn
corona virus btn
Loading

ঘোড়া কেনাবেচার ভয়! গুজরাত থেকে বিধায়কদের রাজস্থানের রিসর্টে নিয়ে এল কংগ্রেস

ঘোড়া কেনাবেচার ভয়! গুজরাত থেকে বিধায়কদের রাজস্থানের রিসর্টে নিয়ে এল কংগ্রেস
প্রতীকী চিত্র৷

আগামী ১৯ জুন রাজ্যসভার চারটি আসনের জন্য নির্বাচন রয়েছে৷ তার আগেই কংগ্রেস শিবিরের হৃদকম্পন বাড়িয়ে ইস্তফা দেন দলের তিন বিধায়ক৷

  • Share this:

#রাজস্থান: রাজ্যসভার নির্বাচন৷ আর তাকে কেন্দ্র করেই ফের ঘোড়া কেনাবেচার ভয়৷ আগাম সতর্ক হয়ে নিজেদের ২১ বিধায়ককে তাই গুজরাত থেকে রাজস্থানে নিয়ে এসে রিসর্টে বন্দি করে ফেলল কংগ্রেস৷ তাদের অভিযোগ, দলীয় বিধায়কদের নিজেদের শিবিরে টানার জন্য প্রলোভন দেখাচ্ছে বিজেপি৷

রাজ্যসভা নির্বাচন বা আস্থা ভোটকে কেন্দ্র করে ঘোড়া কেনাবেচার এই রাজনীতি নতুন নয়৷ সাম্প্রতিক কালে কর্ণাটক, মধ্যপ্রদেশের মতো রাজ্যে নিজেদের দল বা সমর্থনকারী বিধায়কদের ধরে রাখতে না পেরে যথেষ্টই মুখ পুড়েছে কংগ্রেসের৷ এবার রাজ্যসভা নির্বাচনে আর সেই ভুল করতে চায় না তারা৷

আগামী ১৯ জুন রাজ্যসভার চারটি আসনের জন্য নির্বাচন রয়েছে৷ তার আগেই কংগ্রেস শিবিরের হৃদকম্পন বাড়িয়ে ইস্তফা দেন দলের তিন বিধায়ক৷ ফলে ১৮২ আসন বিশিষ্ট গুজরাত বিধানসভায় কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা কমে হয়েছে ৬৫৷ এর পরেই দলে ভাঙন আটকাতে প্রথমে দলীয় বিধায়কদের রাজকোট, আমবাজি এবং আনন্দের তিনটি রিসর্টে নিয়ে গিয়ে রাখেন কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ এরই মধ্যে কংগ্রেস বিধায়কদের যে রিসর্টগুলিতে রাখা হয়েছিল, তার মধ্যে একটি রিসর্টের বিরুদ্ধে লকডাউন বিধিভঙ্গ করে কংগ্রেস বিধায়কদের রাখার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করা হয়৷ এর পরই ওই রিসর্ট থেকে ২১ জন বিধায়ককে নিয়ে রাজস্থানের আবু রোডের একটি রিসর্টে এনে তোলা হয়৷ গুজরাতের বনসকথা জেলার সীমান্ত লাগোয়া রাজস্থানের সিরোহি জেলায় রয়েছে ওই রিসর্টটি৷

গুজরাতের কংগ্রেস সভাপতি অমিত চাভদার অভিযোগ, করোনা সংক্রমণ আটকানোর চেষ্টা না করে ক্ষমতার অপব্যবহার করে কংগ্রেস বিধায়কদের দলে টানার চেষ্টা করছে গুজরাতের বিজেপি সরকার৷ তাঁর অবশ্য দাবি, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ঠিক করতেই এক জায়গায় জড়ো হয়েছেন কংগ্রেস বিধায়করা৷ বিজেপি অবশ্য ঘোড়া কেনাবেচার অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷

গুজরাত থেকে রাজ্যসভার দু'টি আসনের জন্য প্রার্থী দিয়েছে কংগ্রেস৷ কিন্তু তিন বিধায়কের ইস্তফার পর দু'টি আসনেই তাদের জয় নিশ্চিত নয়৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: June 8, 2020, 9:07 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर