• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • CONGRESS AND OTHER OPPOSITION TO BOYCOTT MIDNIGHT PARLIAMENT SESSION ON GST ROLLOUT

৩০ জুন মধ্যরাতেই সংসদে GST অধিবেশন, বয়কট করছে কংগ্রেস সহ বহু বিরোধী

৩০ জুন মধ্যরাতেই সংসদে GST অধিবেশন, বয়কট করছে কংগ্রেস সহ বহু বিরোধী

৩০ জুন মধ্যরাতেই সংসদে GST অধিবেশন, বয়কট করছে কংগ্রেস সহ বহু বিরোধী

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: এক দেশ। এক কর। শুক্রবার মধ্যরাতে সংসদে বিশেষ অধিবেশনের মাধ্যমে চালু হচ্ছে জিএসটি যুগ। তবে মোদি সরকার চাইলেও এই অধিবেশন ঘিরে ঐক্যের ছবি তুলে ধরা সম্ভব হচ্ছে না। অধিবেশন বয়কট করছে প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস। থাকছে না আরজেডি, তৃণমূল কংগ্রেস, ডিএমকে এমনকি বামেরাও। যেভাবে জিএসটি চালু করছে মোদি সরকার, তার প্রতিবাদেই অনুষ্ঠান বয়কটের পথে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো।

    অধিবেশনে যোগ দিচ্ছে না কংগ্রেস তৃণমূল কংগ্রেস ডিএমকে বাম জোট আরজেডি আরএলডি

    শেষ পর্যন্ত কী শুধু এনডিএ শরিক ও কয়েকটি আঞ্চলিক দলকে নিয়েই হবে মধ্যরাতের জিএসটি অধিবেশন? শুক্রবার দিনভর অন্তত সেই সম্ভাবনাই জোরালো হল। জিএসটি অধিবেশন বয়কটের ঘোষণা কংগ্রেসের। দেশজুড়ে ঘটে চলা বিভিন্ন ঘটনার পরেও প্রধানমন্ত্রী নিষ্ক্রিয়। এর প্রতিবাদেই অধিবেশন বয়কটের সিদ্ধান্ত।

    ঠিক ছিল, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মনমোহন সিং অনুষ্ঠান মঞ্চে থাকবেন। তবে বক্তা হিসাবে তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। প্রথম থেকেই তাতে ক্ষুব্ধ কংগ্রেস।

    তাড়াহুড়ো করে জিএসটি শুরুর প্রতিবাদে অধিবেশনে নেই তৃণমূল কংগ্রেস। বিজেপির আশা ছিল, মতবিরোধ থাকলেও অনুষ্ঠানে সামিল হবে বামেরা। সেই আশাতেও জল পড়েছে।

    অধিবেশনে থাকছে না আরজেডি, আরএলডির মতো ইউপিএ-র শরিকরাও। এই পরিস্থিতি এড়াতে চেষ্টার কসুর করেনি মোদি সরকার। প্রধানমন্ত্রীকে ঘিরে অনুষ্ঠানসূচি তৈরি হলেও বিশেষ আমন্ত্রণ জানানো হয় বর্তমান ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সহ অর্থমন্ত্রীদেরও। তবে অসহিষ্ণুতা, গো-রক্ষার নামে খুন, কৃষক আত্মহত্যার মতো ইস্যুতে মোদি সরকারকে ছাড় দিতে নারাজ বিরোধীরা।

    ২০০৬ সালে ইউপিএ আমলেই শুরু হয়েছিল জিএসটি রূপায়নের প্রক্রিয়া। বহু বাধা পেরিয়ে কার্যকর হচ্ছে অভিন্ন কর-নীতি। সেই উপলক্ষেই মধ্যরাতে অধিবেশন। বিরোধীরা বয়কট করলে জিএসটির কৃতিত্ব নিয়ে নিতে পারে মোদি সরকার। তারপরও বিরোধিতার সুর চড়া রাখতেই বয়কটের পথেই হাঁটছে বিরোধীরা।

    First published: