দেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘‌সনিয়া রাহুলের হাত শক্ত করাই এখন কংগ্রেসের কর্তব্য’‌, কং ওয়ার্কিং কমিটিতে সিদ্ধান্ত

‘‌সনিয়া রাহুলের হাত শক্ত করাই এখন কংগ্রেসের কর্তব্য’‌, কং ওয়ার্কিং কমিটিতে সিদ্ধান্ত
File Image

কংগ্রেসের কোনও নেতাই প্রকাশ্যে সংবাদমাধ্যম বা অন্য কোনও মাধ্যমে পার্টির আভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন না।

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি:‌ ‌ টালমাটাল পরিস্থিতির পর শেষ পর্যন্ত কংগ্রেস ভরসা রাখছে সেই সনিয়া–রাহুলের ওপরেই। কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির সভায় অন্তত তেমনই সিদ্ধান্ত হয়েছে। এদিন সব ঝামেলা মিটিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, কংগ্রেসের দায়িত্ব আপাতত থাকছে সনিয়া গান্ধির ওপরে। এছাড়াও এদিন ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে বেশ কয়েকটি বিষয় আলোচিত হয়েছে। তার প্রথমেই আলোচিত হয়েছে ইস্যু। সেখানে বলা হয়েছে, করোনা অতিমারী, অর্থনৈতিক সংকট, বেকারত্ব ও সীমান্ত সুরক্ষাই এখন দেশের রাজনীতির প্রধানতম ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেগুলিকে বিরোধী দল হিসাবে লাগাতার তুলে ধরাটা এখন কংগ্রেসের কাজ।

পাশাপাশি, কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি মনে করছে সাম্প্রতিককালে কেন্দ্রীয় শাসকদলের বিভাজনের রাজনীতি ও বিপথে চালনা করার রাজনীতিকে সফলভাবে তুলে ধরার কাজ করেছেন সনিয়া গান্ধি ও রাহুল গান্ধি। পরিযায়ী শ্রমিকদের সমস্যা নিয়ে যেভাবে সনিয়া গান্ধি তাঁর চিঠিতে একাধিক ইস্যু তুলে ধরেছেন, এবং বিজেপি কীভাবে পরিযায়ী শ্রমিকদের হেলাফেলা করেছে, সেটা প্রকাশ করেছেন, তাতে দেশের সাধারণ মানুষের কাছে আসল ছবিটা ফুটে উঠেছে। পাশাপাশি, সনিয়া গান্ধির পরামর্শে ও নেতৃত্বে কংগ্রেসের শাসনাধীন রাজ্যগুলি সফলভাবে করোনা মোকাবিলা করেছে। অন্যদিকে, বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি একই রোগ মোকাবিলায় চরম ব্যর্থতার মুখে পড়েছে। রাহুল গান্ধি তুলে ধরেছেন, কীভাবে দেশের একাধিক বিজেপি শাসিত রাজ্য করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়েছে। পাশাপাশি, কংগ্রেসের নেতৃত্ব হিসেবে এঁরা দু’‌জনেই দেশের মানুষকে সত্যের আয়নার সামনে দাঁড় করিয়েছেন। তাই কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটি মনে করছে, রাজনীতির এই বিশেষ সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে কংগ্রেসের নেতৃত্বকে দূর্বল করে দেওয়া চলবে না।

পাশাপাশি ওয়ার্কিং কমিটি এটিও মনে করে যে কংগ্রেসের নেতৃত্ব যেভাবে দেশের মানুষের সামনে বিজেপির বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলে ধরেছেন, তাতে দেশের মানুষ সত্যের আঁচ পেয়েছেন। এর পাশাপাশি কংগ্রেসের নেতৃত্বকে নিয়মে বাঁধার কথাও ভেবেছে ওয়ার্কিং কমিটি। সেখানে সিদ্ধান্ত হয়েছে, কংগ্রেসের কোনও নেতাই প্রকাশ্যে সংবাদমাধ্যম বা অন্য কোনও মাধ্যমে পার্টির আভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন না। যা আলোচনা হবে আর্টির অন্দরেই করতে হবে। যাতে পার্টির মধ্যে সঠিক নিয়ম বজায় থাকে। এসব সিদ্ধান্তের পরে শেষ সিদ্ধান্ত হিসাবে কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছে সনিয়া গান্ধিকে। আগামী অধিবেশন পর্যন্ত তিনিই এই পদের দায়িত্ব সামলাবেন।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: August 24, 2020, 8:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर