Home /News /national /
Cock saves man : কুকুরের হামলা থেকে মালিককে বাঁচিয়ে প্রাণ দিল মোরগ! শোকপালন প্রতাপগড়ে

Cock saves man : কুকুরের হামলা থেকে মালিককে বাঁচিয়ে প্রাণ দিল মোরগ! শোকপালন প্রতাপগড়ে

ভেড়ার বাচ্চাকে বাঁচিয়ে কুকুরের হামলায় প্রাণ দিল মোরগ

ভেড়ার বাচ্চাকে বাঁচিয়ে কুকুরের হামলায় প্রাণ দিল মোরগ

Cock died saving sheep from dog attack in Pratapgarh as owner performs last rites. মোরগের মৃত্যুতে ১৩ দিনের শোক পালন মালিকের! প্রতাপগড়ে অবাক কান্ড

  • Share this:

    #প্রতাপগড়: জীবনে শুধু মানুষের থেকেই মানুষ শিখতে পারে এমন নয়। জীবজন্তুর থেকেও অনেক কিছু শেখার আছে। এমন উদাহরণ দেখা গেছে উত্তর প্রদেশে। কুকুরের হামলা থেকে ভেড়ার বাচ্চাকে বাঁচিয়েছিল পোষা মোরগ। কিন্তু কুকুরের সাথে লড়াইয়ে তার মৃত্যু হয়। নিজের জীবন দিয়ে ভেড়ার বাচ্চাকে বাঁচানোয় মোরগের জন্য শোক পালনের সিদ্ধান্ত নেন মালিক।

    আরও পড়ুনBCCI : ভারতীয় ক্রিকেটারদের বিশ্বের অন্যান্য লিগে খেলার ছাড়পত্র দেওয়ার ভাবনায় বিসিসিআই

    একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, কোনো মানুষ মারা গেলে তার জন্য যেভাবে পরিবারের সদস্যরা নিয়ম পালন করেন, ঠিক সেভাবেই ১৩ দিন ধরে নিয়ম পালন করেছেন তার মালিক। ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের প্রতাপগড়ের। মোরগের মালিক সল্করাম সরোজ বলেন, ৭ জুলাই বাড়ির পিছনে ঘাস খাচ্ছিল একটি ভেড়ার বাচ্চা। সেই সময় রাস্তার একটি কুকুর বাচ্চাটির ওপর হামলা চালায়।

    তখন ওই জায়গাতেই ছিল তার পোষা মোরগ লালি। ভেড়ার বাচ্চার ওপর হামলা চালাতে দেখেই কুকুরের দিকে তেড়ে যায় মোরগটি। কুকুরটিকে ধাওয়া করে ওই জায়গা থেকে তাড়িয়ে দেয়। কিন্তু ততক্ষণে আরও কয়েকটি কুকুর এসে মোরগটিকে ঘিরে ধরে হামলা চালায়। কুকুরের হামলায় গুরুতর জখম হয় লালি।

    ৮ জুলাই মৃত্যু হয় তার। বাড়িতেই লালির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া করেন সল্করাম। তার ছেলে অভিষেক বলেন, লালি আমাদের পরিবারের সদস্যের মতো ছিল। তার মৃত্যুর পর বাবা স্থির করেন সব রকম নিয়মনীতি মানবেন। তাই ১৩ দিন নিয়ম পালন করে খাওয়াদাওয়ারও আয়োজন করেন সল্করাম।

    প্রায় ৫০০ লোককে নিমন্ত্রণ করে খাইয়েছেন তিনি। এমন ঘটনা সত্যি বিশ্বাস করা কঠিন। কিন্তু জীবজন্তুর সঙ্গে মানুষের সম্পর্ক কতটা উন্নত হতে পারে এই ঘটনা তারই প্রমাণ।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    পরবর্তী খবর