Home /News /national /
Maharashtra Crisis: এর আগেও দু-বার ইস্তফা দেওয়ার কথা ভেবেছিলেন উদ্ধব ঠাকরে, শরদ পাওয়ারের কথায় দেননি

Maharashtra Crisis: এর আগেও দু-বার ইস্তফা দেওয়ার কথা ভেবেছিলেন উদ্ধব ঠাকরে, শরদ পাওয়ারের কথায় দেননি

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

Maharashtra Crisis: এই সংকটের দ্বিতীয় দিন ফের একবার ইস্তফা দেওয়ার কথা মনস্থির করে ফেলেছিলেন উদ্ধব।

  • Share this:

    #মুম্বই: মহারাষ্ট্রের সংকটের মধ্যেই উঠে আসছে আরও নতুন নতুন তথ্য। সম্প্রতি সূত্র মারফত খবর পাওয়া গিয়েছে, উদ্ধব ঠাকরে এর আগেও ইস্তফা দেওয়ার বিষয়ে উদ্যত হয়েছিলেন উদ্ধব ঠাকরে। তবে এই দুবারই তাঁকে নিরস্ত্র করেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার। সূত্র মারফত এই খবর পাওয়া গিয়েছে। মহারাষ্ট্রে বর্তমান বিজেপি বিরোধী সরকারে শিবসেনার পাশাপাশি রয়েছে এনসিপি ও কংগ্রেস। কিন্তু শিবসেনার নেতা একনাথ শিন্ডে বিদ্রোহ ঘোষণা করার পর থেকে সরকার সংকটে পড়ে গিয়েছে। সেই কারণেই উঠে আসছে নানা কথা।

    সুত্র মারফত যে খবর পাওয়া গিয়েছে, এই বর্তমান সংকট শুরু হওয়ার প্রথম দিন, যে দিন সরাসরি ফেসবুকে লাইভে কথা বলার কথা শিল উদ্ধব ঠাকরের সেদিনই ইস্তফা দিতে চেয়েছিলেন তিনি। সেই কারণেই লাইভে আসতে তাঁর দেরি হয়েছিল। সেটিকে যান্ত্রিক সমস্যা বলে চালালেও আসলে ঘটনাটি তা নয়।

    আরও পড়ুন Mukul Roy: স্পিকারের কাছে পাঠালেন ইস্তফাপত্র, হঠাৎ শোরগোল ফেলে দিলেন মুকুল রায়!

    এই সংকটের দ্বিতীয় দিন ফের একবার ইস্তফা দেওয়ার কথা মনস্থির করে ফেলেছিলেন উদ্ধব। কিন্তু তিনি ফের সেই সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে আসেন কেবল মাত্র শরদ পাওয়ারের কথায়। সেই সময়ে বলা হয়েছিল, বিদ্রোহী বিধায়ক বলে কেউ নেই, মিডিয়া ইচ্ছা করে এই তথ্য প্রকাশ করছে। সূত্র মারফথ আরও জানা গিয়েছে, শিবসেনার বিধায়ক দীপক কেসারকর ও কারিগরি শিক্ষা মন্ত্রী উদয় সামন্তের গতিবিধির দিকে নজর রাখতে মোতায়েন করা হয়েছিল পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগকে। কিন্তু মন্ত্রী ও বিধায়ক দুজনেই পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হন।

    আরও পড়ুন: হরিদেবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শিশুর মৃত্যু, গর্জে উঠলেন ফিরহাদ! দিলেন হুঁশিয়ারিও

    মনে করা হচ্ছে, এই সপ্তাহের শেষেই আস্থা ভোট হতে চলেছে মহারাষ্ট্রে। সেখানেই শক্তি পরীক্ষা হবে মহারাষ্ট্রের শিবসেনার দুই শক্তির। ফলে বলা চলে, কার্যত একই দলের দুই গোষ্ঠীর লড়াই দেখতে চলেছে মহারাষ্ট্রের বিধানসভা।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Maharashtra

    পরবর্তী খবর