ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক সংঘর্ষ, উত্তেজনা খানাকুল, বাগদায়

ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক সংঘর্ষ, উত্তেজনা খানাকুল, বাগদায়
  • Share this:

#কলকাতা: ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক সংঘর্ষ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। রানিতলায় নিহত ভোটার টিয়ারুল শেখের বাড়িতে কংগ্রেস নেতৃত্ব। মৃত্যুর তদন্তের দাবি। মালদহের সামসিতে তৃণমূলের উপর হামলার অভিযোগ। উত্তেজনা খানাকুল, বাগদাতেও। টিয়ারুল তাদের দলের কর্মী বলে দাবি করেছিল কংগ্রেস। যদিও নিহতের পরিবারের দাবি, কোনও দলের সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন না টিয়ারুল। বুধবার তাঁর বাড়িতে যান মুর্শিদাবাদের কংগ্রেস প্রার্থী আবু হেনা ও ভগবানগোলার বিধায়ক মহসিন আলি। কমিশনের দাবি ছিল, ভগবানগোলায় বুথ থেকে ৩০০ মিটার দূরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বুথ থেকে ঘটনাস্থলের দূরত্ব মেপে কংগ্রেস নেতাদের দাবি, বুথ থেকে ১২ মিটার দূরে ঘটনাটি ঘটে। টিয়ারুলের মৃত্যুর তদন্ত দাবি কংগ্রেসের।

তৃতীয় দফার ভোটে উত্তেজনা ছড়িয়ে ছিল মালদহের সামসিতে। ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস অব্যাহত মালদহেও। রতুয়ার ভগবানপুরে তৃণমূল কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। আহত ৭ তৃণমূল কর্মী। বিজেপির মিছিলে হামলা চালানোর অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। হুগলির খানাকুলের সেনহাটির ঘটনায় উত্তেজনা। বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগও উঠেছে। প্রতিবাদে কিছুক্ষণ আরামবাগ-খানাকুল রাস্তা অবরোধ করা হয়। পালটা পুলিশের সামনেই বিজেপির বিরুদ্ধে দলীয় কর্মীকে মারধরের অভিযোগ তুলেছে তৃণমূলও।

উত্তর চব্বিশ পরগনার বাগদার রামনগর-দরমাতলা এলাকায় তৃণমূলের পতাকা পোড়ানো ঘিরে উত্তেজনা। অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বাগদা থানার পুলিশ। অভিযোগ অস্বীকার করে পালটা তৃণমূলের বিরুদ্ধেই তোপ বিজেপির৷

First published: April 25, 2019, 1:07 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर