দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

রন্ধনে দ্রৌপদী! ৫৮ মিনিটে ৪৬টি পদ রেঁধে বিশ্বরেকর্ড গড়ল চেন্নাইয়ের ছোট্ট মেয়ে লক্ষ্মী!

রন্ধনে দ্রৌপদী! ৫৮ মিনিটে ৪৬টি পদ রেঁধে বিশ্বরেকর্ড গড়ল চেন্নাইয়ের ছোট্ট মেয়ে লক্ষ্মী!

মাত্র ৫৮ মিনিটে ৪৬ খানা পদ রান্না করে বিশ্ব রেকর্ড (World Record) গড়েছে এই মেয়ে।

  • Share this:

#বেঙ্গালুরু: তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) মেয়ে এস এন লক্ষ্মী (S N Lakshmi) এক অনন্য নজির সৃষ্টি করল। মাত্র ৫৮ মিনিটে ৪৬ খানা পদ রান্না করে বিশ্ব রেকর্ড (World Record) গড়েছে এই মেয়ে। UNICO বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম উঠেছে লক্ষ্মীর। দুর্দান্ত রাঁধুনি হওয়ার জন্য এই অনন্য সম্মান পেয়েছে সে।

লক্ষ্মী সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে যে ছোটবেলা থেকেই তার রান্নাবান্নায় (Culinary) খুব আগ্রহ ছিল। আর এই ব্যাপারে তাকে আরও বেশি সাহায্য করেছেন তার মা। আজ এই সাফল্য পেয়ে অত্যন্ত খুশি হয়েছে লক্ষ্মী, এ কথাও সে সাংবাদিকদের জানিয়েছে। সবটাই কঠোর পরিশ্রমের ফলাফল বলে মনে করছে সে।

https://twitter.com/ANI/status/1338980785139769346?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1338980785139769346%7Ctwgr%5E%7Ctwcon%5Es1_&ref_url=https%3A%2F%2Fwww.news18.com%2Fnews%2Fbuzz%2Fchennai-girl-cooks-her-way-into-record-book-by-rustling-up-46-dishes-in-an-hour-3183539.html

খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) আসার পর ৩৫০০-এরও বেশি লাইক পেয়েছে। অনেকেই লক্ষ্মীর এই বিশেষ গুণের জন্য তাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। ছোট্ট মেয়েটি যে দেশের মুখ উজ্জ্বল করেছে, সে কথাও বলেন অনেকে। প্রাণ ভরে আশীর্বাদও করেছেন সবাই যাতে লক্ষ্মী ভবিষ্যতে আরও অনেক উন্নতি করতে পারে।

লক্ষ্মীর মা এন কালাইমাগাল বলেছেন যে লকডাউন (Lockdown) শুরু হওয়ার পর সবাই গৃহবন্দী হয়ে পড়েছিল। তখন লক্ষ্মী রান্নাবান্না নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। দেখা যায় সে ভালোই পটু হয়ে উঠেছে রন্ধনশিল্পে (Cooking)। লক্ষ্মীর বাবাই তাকে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার জন্য উৎসাহ দেন। লক্ষ্মীর বাবা জানতে পারেন যে কেরলের (Kerala) ১০ বছরের মেয়ে সাংভি ৩০টি পদ রান্না করেছে। তখনই লক্ষ্মীকে তিনি বলেন যে তাকে এই রেকর্ড ভাঙতে হবে এবং সাংভির চেয়ে বেশি পদ রান্না করে দেখাতে হবে।

কালাইমাগাল অর্থাৎ লক্ষ্মীর মা বলেছেন যে তিনি নিজেও রান্না করতে খুব ভালোবাসেন। তামিলনাড়ুর অনেক ঐতিহ্যশালী রান্না তিনি করেন। তাঁকে এই কাজে সাহায্য করে লক্ষ্মী। কারণ সে বেশিরভাগ সময়েই মায়ের সঙ্গে রান্নাঘরে সময় কাটাতে পছন্দ করে। লক্ষ্মী যে খুব ভালো রান্না করে, সেই নিয়ে কালাইমাগাল নিজের স্বামীর সঙ্গে আলোচনা করছিলেন। তখনই দু'জনে স্থির করেন যে লক্ষ্মীর একবার বিশ্বরেকর্ড গড়ার চেষ্টা করা দরকার।

একটা ছোট্ট মেয়ে এত কম সময়ে এতগুলো রান্না করে ফেলল, আর অনেকে তা অনেক বয়সে এসেও করতে পারেন না। তাই লক্ষ্মীর সঙ্গে নিজের তুলনা টেনে মজার মন্তব্যও করেছেন অনেকে। একজন বলেছেন যে তাঁর শুধু ডাল আর ভাত তৈরি করতেই দু' ঘণ্টা লাগে। ছোট্ট লক্ষ্মীকে ভারতের খুদে মাস্টার শেফ বলে আখ্যা দিয়েছেন অনেক নেটিজেন!

Published by: Akash Misra
First published: December 17, 2020, 2:09 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर