ফের হানা দিচ্ছে করোনা, বন্ধ হল চন্দনেশ্বরের চরক উৎসব

ফের হানা দিচ্ছে করোনা, বন্ধ হল চন্দনেশ্বরের চরক উৎসব

চন্দনেশ্বর মন্দির।

প্রশাসনের কথা মেনেই মন্দির কর্তৃপক্ষও চড়ক উৎসব বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

  • Share this:

#দিঘা: নতুন করে আবারও বাড়ছে করোনা, তারই জেরে আবার নতুন করে তৎপরতা শুরু হচ্ছে! গত বছরের মতো এবারও দিঘা লাগোয়া ওড়িশার প্রাচীন চন্দনেশ্বর মন্দিরের বিখ্যাত চড়ক উৎসব স্থগিত থাকছে। আজ রবিবার  এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বালেশ্বর জেলা প্রশাসন। প্রশাসনের কথা মেনেই  মন্দির কর্তৃপক্ষও চড়ক উৎসব বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মাঝে কমে গেলেও করোনা সংক্রমণ আবারও বাড়ছে। এই রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আরও একবার সাতশো ছাড়িয়েছে। করোনা বাড়ছে ওড়িশাতেও। সেই কারণেই প্রমাদ গুণছে প্রশাসন।  আপাতত সংক্রমণ এড়াতে তাই এই উৎসব বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বলে উদ্যোক্তা মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।

চন্দেশ্বর মন্দিরটি ওড়িশা রাজ্যের হলেও প্রাচীন এই মন্দিরে বছরভরই মেদিনীপুর সহ বাংলার পূর্ণার্থীদের জড়ো হতে দেখা যায়।  গাজন-সহ বিভিন্ন উৎসবের দিনগুলিতে ভক্তদের ভিড় লাগামছাড়া হয়। সারা বছরও ভক্ত সমাগম যথেষ্টই হয়।  করোনার ভয়াবহতার কারণে লকডাউনের আগেই চন্দেনেশ্বর মন্দিরে মানুষের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। পরে করোনা প্রকোপ কমার কারনে মন্দিরের দরজা খুলে দেওয়া হয়।  বেশ কিছুদন স্বাভাবিক অবস্থা চললেও ফের হানাদারি চালাচ্ছে করোনা। সংক্রমণের প্রকোপ আবার বাড়ায় মন্দিরে সব রকম জমায়েত বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে আসন্ন চড়ক ও গাজন উৎসবও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত দর্শকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে মেলা এবং উৎসব বন্ধ রাখা হলেও বিধি রক্ষার জন্য মাত্র ১৪ সদস্যকে রেখে পুজো এবং চড়ক অনুষ্ঠান চালু রাখা হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

Published by:Arka Deb
First published:

লেটেস্ট খবর