Centre notice to Twitter: ট্যুইটারেকে আইন মানতে 'শেষ নোটিস' ধরাল কেন্দ্র, অমান্যে কড়া ব্যবস্থা

ট্যুইটার বনাম কেন্দ্র সংঘাত চরমে। প্রতীকী ছবি

Centre notice to Twitter:বলা হয়েছে গাইডলাইন মানতে টুইটার বাধ্য, না মানলে তারা এই আইনেই শাস্তির আওতায় পড়বে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ট্যুইটারকে শেষ নোটিস ধরাল কেন্দ্র। কেন্দ্রের তরফে ট্যুইটারকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, নয়া নির্দেশিকা মানতে হবে নয়তো কেন্দ্রের তরফে নেওয়া আইনানুগ ব্যবস্থার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। আজ শনিবারের সরকারি বিবৃতিতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, এটাই ট্যুইটারের জন্য শেষ নোটিস।মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে ভারতে জারি হওয়া আইটি আইন ২০০০-এর ৭৯ নম্বর ধারায় গাইডলাইন আইন অবমাননার যাবতীয় ফল বর্ণনা করা আছে । ফলে গাইডলাইন মানতে টুইটার বাধ্য, না মানলে তারা এই আইনেই  শাস্তির আওতায় পড়বে।

    আজই ভারতের উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু, আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত -সহ  সঙ্ঘ ঘনিষ্ঠ অনেকের ট্যুইটার থেকে  ব্লু টিক সরিয়ে নিয়েছে সংস্থা। এই নিয়ে চূড়ান্ত শোরগোল দেশ জুড়ে, তার মধ্যেই ট্যুইটারকে নোটিশ ধরাল কেন্দ্র।

    দিন কয়েক আগেই ট্যুইটার জানিয়েছিল, ভারতকে বড় বাজার হিসেবে দেখে এই সংস্থা। কিন্তু এরই পাশাপাশি ভারতের আইটি আইনের সমালোচনা করা হয় ট্যুইটারের পক্ষ থেকে। বলা হয়, নতুন আইন স্বাধীন মত প্রকাশের পক্ষে অন্তরায়। এর উত্তরে সরকার বলেছিল, ট্যুুইটার মিথ্যে ভিত্তিহীন অভিযোগ এনে ভারত সরকারকে কালিমালিপ্ত করছে।

    উল্লেখ্য  টুইটারের সঙ্গে কেন্দ্রের বাদ-বিবাদ চলছে গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে। ফেব্রুয়ারিতে তথ্যমন্ত্রকের তরফে ট্যুইটারকে বলা হয়েছিল, মোদি প্রশাসক কৃষি আন্দোলনের দমন করতে চাইছে, এই মর্মে যে সব  ট্যুইট তা সরাতে হবে।

    নতুন আইন আনে কেন্দ্র। সেখানে বলা হয় সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলিকে একজন করে গ্রিভেন্স অফিসার নিয়োগ করতে হবে অভিযোগ দেখার জন্য। পাশাপাশি বলা হয়. আপত্তিকর টুইটের জন্য জবাবদিহি চাওয়া হতে পারে সংস্থার কাছ থেকেও।

    এছাড়া গত মে মাসে কংগ্রেসের সঙ্গে বিজেপির ট্যুইট তরজায় বিজেপি নেতাদের কিছু পোস্টকে ম্যানিপুলেটেড মিডিয়া হিসেবে দাগিয়ে দেয় ট্যুইটার। কেন্দ্রের তরফে এর বিরোধিতা করা হয়। এবার কি তবে শেষ সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কেন্দ্র, ভারতের বাজার ছাড়তে হবে ট্যুইটারকে, তুমুল জল্পনা গোটা দেশজুড়ে।

    Published by:Arka Deb
    First published: