খনিতে মন্দা কাটাতে ভরসা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি

খনিতে মন্দা কাটাতে ভরসা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি
Representational Image
  • Share this:

#কলকাতা: খনিতে মন্দা কাটাতে ভরসা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। খোলামুখ খনি ও গভীর খনন - দু’ক্ষেত্রেই কাজে লাগানো হবে আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স। অর্থাৎ নতুন খনি চিহ্নিত হলে তাতে কতটা খনিজ সম্পদ জড়িত, সে বিষয় ধারণা মিলবে। আবার খনিতে কী ধরণের বিপর্যয়ের সম্ভাবনা তাও চিহ্নিত করতে কাজে লাগানো হবে বিশেষ প্রযুক্তি। এশিয়ান মাইনিং কংগ্রেসে এই প্রযুক্তির খুঁটিনাটি তুলে ধরলেন খনি বিশেষজ্ঞরা।

খনি সুরক্ষায় সম্প্রতি আইমোভা প্রযুক্তির সাহায্য নিচ্ছে পোল্যান্ড ও জার্মানির মতো দেশ। যারা খনি প্রযুক্তিতে দুনিয়ার সেরা বলেই মনে করা হয়। কীভাবে কাজ করে এই প্রযুক্তি? কেন্দ্রীয় খনি মন্ত্রকের এক আধিকারিক জানালেন, এটা আদতে থ্রি ডি ইমেজিং প্রযুক্তি। জিও ম্যাটিক্স প্রযুক্তিতে এর মাধ্যমে খনিতে সঞ্চিত সম্পদ সম্পর্কে ধারণা পাওয়া সম্ভব। কয়লা উত্তোলনে প্রাথমিকভাবে এই প্রযুক্তি কাজে লাগানো লাগানোর ভাবনা খনি মন্ত্রকের। পরবর্তীতে অন্য খনিতেও ধাপে ধাপে তা প্রয়োগ করা হবে। কেন্দ্রের দাবি, খনিতে সঞ্চিত সম্পদের পরিমাণ নিয়ে তথ্য না থাকায় বিপুল ক্ষতির মুখে পড়তে পারে শিল্পসংস্থাগুলো। এখানেই ভরসা আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স।

মাইনিং কংগ্রেসে যোগ দিতে কলকাতায় এসেছেন বিশ্বের বিভিন্ন খনি বিশেষজ্ঞ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা। সম্মেলনে যোগ দিয়েছে জার্মানির ১০টি সংস্থা। রাজ্যের খনিক্ষেত্রে লগ্নিতে আগ্রহী জার্মানি। ইতিমধ্যেই রাজ্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন নিগমের সঙ্গে প্রাথমিক কথাবার্তা সেরেছে জার্মান সংস্থা। নতুন কয়লাখনিতে লগ্নিতে আগ্রহী তাঁরা। গত বছর বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনে যোগ দিয়েছিল জার্মান খনি সংস্থা। পরে জার্মান খনি প্রযুক্তি হাতেকলমে দেখতে ডুসেলডর্ফে যান শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র। দেউচা - পাঁচামি কয়লাখনিতেও কী একই প্রযুক্তির প্রয়োগ হতে পারে? কেন্দ্রীয় খনি সচিবের বক্তব্য, রাজ্য সরকারকেই সেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে ৷

সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশীর দাবি, খনিশিল্পকে পরিবেশ সহায়ক ও লাভজনক করতে তুলতেই নতুন খনি নীতি ২০১৯ হাতে নিয়েছে কেন্দ্র। নেওয়া হয়েছে ভিশন ২০২৫। অর্থাৎ ২০২৫ সালের মধ্যে খনিগুলিকে পরিবেশ সহায়ক হিসাবে তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কেন্দ্র।

First published: 11:46:43 PM Nov 07, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर