Home /News /national /
All India Strike: সাফল্য নিয়ে সংশয়, প্রায় এক মাস পিছিয়ে গেল দু' দিনের দেশ জোড়া ধর্মঘট

All India Strike: সাফল্য নিয়ে সংশয়, প্রায় এক মাস পিছিয়ে গেল দু' দিনের দেশ জোড়া ধর্মঘট

পিছিয়ে গেল দেশব্যাপী ধর্মঘট৷

পিছিয়ে গেল দেশব্যাপী ধর্মঘট৷

শ্রমিক সংগঠনের বক্তব্য অনুযায়ী, তাঁরা করোনা পরিস্থিতির কারণেই ধর্মঘট থেকে আপাতত পিছিয়ে এসেছে (All India Strike)।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আগামী ২৮ ও ২৯ মার্চ দেশজুড়ে সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলি (All India Strike)। আগামী ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি দুই দিন দেশব্যাপী সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনের যৌথ মঞ্চ ও সর্বভারতীয় কর্মী ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশন।

ট্রেড ইউনিয়নগুলোর নেতারা মনে করছেন, বর্তমানে বিপর্যস্ত আর্থিক28  পরিস্থিতিতে দু’দিনের সাধারণ ধর্মঘটকে জনগন কতটা সমর্থন করবেন, সেই নিয়ে সংশয় রয়েছে। এ নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে শ্রমিক সংগঠনের অন্দরেই। তার উপর ফেব্রুয়ারিতে পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন আসন্ন। অতএব, নির্বাচনী ব্যস্ততার মাঝে ধর্মঘটের কর্মসূচি নেওয়া যে সম্ভব নয়, তা বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন: অখিলেশের দলে গুন্ডারাজ চলছে ; মহিলাদের সুরক্ষার জন্য় বিজেপিকে বাছুন, শাহ বচনেই ভরসা স্মৃতির

তবে শ্রমিক সংগঠনের বক্তব্য অনুযায়ী, তাঁরা করোনা পরিস্থিতির কারণেই ধর্মঘট থেকে আপাতত পিছিয়ে এসেছে। সিপিআই(এম)-র রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রের দাবি, ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনের যৌথ মঞ্চ। সুতরাং চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত তাঁরাই নেবে। প্রসঙ্গত, যৌথ মঞ্চে কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনের মধ্যে রয়েছে সিআইটিইউ, আইএনটিইউসি, এআইটিইউসি, এইচএমএস, এআইইউটিইউসি, টিইউসিসি, সেবা, এআইসিসিটিইউ, এলপিএফ, ইউটিইউসি এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে কর্মচারী ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনসমূহ।

যৌথ মঞ্চের ১২ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে কৃষকদের বিভিন্ন দাবিও। তাদের কয়েকটি দাবি, শ্রম কোড আইন বাতিল,সংযুক্ত কিষান মোর্চার ৫ দফা দাবি কার্যকর,  ন্যাশনাল মানিটাইজেশন পলিসির নামে ঢালাও বেসরকারিকরণ চলবে না, মহামারীতে বিপর্যস্ত অবস্থায় আয়কর করের আওতার বাইরে থাকা সকল নাগরিককে মাসে নগদ সাড়ে ৭ হাজার টাকা ও বিনামূল্যে খাদ্য সরবরাহ করতে হবে।

আরও পড়ুন: সিধু বনাম মান, কমেডি শো থেকে পঞ্জাবের মসনদ দখল! পাল্লা ভারী কার?

এর আগে বিবৃতিতে জানানো হয়েছিল, আগামী বাজেট অধিবেশনের মধ্যেই হবে দুই দিনের ধর্মঘট। গত ১১ নভেম্বর দিল্লিতে শ্রমিকদের জাতীয় কনভেনশনে কেন্দ্রের জনবিরোধী, শ্রমিক বিরোধী পদক্ষেপ রুখতে এবং শ্রমিকদের ১২ দফা দাবিতে দেশজুড়ে সাধারণ ধর্মঘটের কর্মসূচি নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। আপাতত সেই ধর্মঘট পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ২৮ ও ২৯ মার্চ দেশ জুড়ে সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলি।

তবে, লকডাউন ও করোনার ধাক্কায় বিপর্যস্ত আর্থিক পরিস্থিতির মধ্যে দু’দিনের সাধারণ ধর্মঘট সঙ্গত কিনা, সেই প্রশ্ন দেখা দিয়েছিল বাম শিবিরেই।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Strike

পরবর্তী খবর