• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • Central Government may stop free ration: 'বিনামূল্যে রেশন' বন্ধ করছে কেন্দ্র, দায় নিতে হবে রাজ্যগুলিকে ?

Central Government may stop free ration: 'বিনামূল্যে রেশন' বন্ধ করছে কেন্দ্র, দায় নিতে হবে রাজ্যগুলিকে ?

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

বিনামূল্যে রেশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে চলতি মাসের ৩০ তারিখে। এখন প্রশ্ন, ১ ডিসেম্বর থেকে কি কেন্দ্রের দেওয়া বিনামূল্যে চাল-গম মিলবে (Central Government may stop free ration)?

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে দেশজুড়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে গত বছর এপ্রিল মাসে 'প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা' (Free Ration) নামে বিনামূল্যে রেশন পরিষেবা চালু করেছিল কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকার। কেন্দ্রীয় এই প্রকল্পে গোটা দেশে প্রায় ৮০ কোটি মানুষকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে মাসিক ৫ কিলোগ্রাম খাদ্যশস্য দেওয়া হচ্ছে। মানুষের খাদ্যাভাসের কথা মাথায় রেখে পশ্চিমবঙ্গে গরিব মানুষকে মাসিক দু' কেজি চাল এবং তিন কেজি গম দেওয়া হচ্ছে এই প্রকল্পের আওতায়।

কেন্দ্রীয় এই প্রকল্পের মেয়াদ ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছিল। অর্থাৎ, বিনামূল্যে রেশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে চলতি মাসের ৩০ তারিখে। এখন প্রশ্ন, ১ ডিসেম্বর থেকে কি কেন্দ্রের দেওয়া বিনামূল্যে চাল-গম মিলবে (Central Government may stop free ration)?

আরও পড়ুন: ডিলার রেশন কম দিচ্ছেন? এখুনি অভিযোগ করুন টোল ফ্রি এই নম্বরে

চারদিকে যখন এই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে তখন শুক্রবার কেন্দ্রীয় খাদ্যসচিব সুধাংশু পাণ্ডের একটি মন্তব্য ঘিরে জল্পনা দানা বেঁধেছে। তিনি জানিয়েছেন, "যেহেতু দেশের অর্থনীতি আবার একটু একটু করে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে, খোলা বাজারেও খাদ্যশস্য বিক্রি হচ্ছে। তাই এই প্রকল্পের মেয়াদ নতুন করে বৃদ্ধির এখনও কোনও প্রস্তাব আসেনি। ফলত বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার মেয়াদ বাড়ানো হবে কিনা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।"

'অল ইন্ডিয়া ফেয়ার প্রাইস শপ ডিলার্স ফেডারেশন'-এর সাধারণ সম্পাদক বিশ্বম্ভর বসু নিউজ এইট্টিন বাংলাকে জানিয়েছেন, "গত বছর এপ্রিলে চালু হওয়া এই প্রকল্পের মেয়াদ চলতি বছর মে মাস থেকে নভেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছিল। এই প্রকল্পে প্রথম বছর ডাল দেওয়া হলেও দ্বিতীয় বছর ডাল প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। বর্তমানে দু-কেজি চাল ও তিন কেজি গম দেওয়া হয়। কিন্তু সেই খাদ্যশস্য বহু পরিমাণে বকেয়া রয়েছে। কেন্দ্রীয় খাদ্য সচিবের কাছে এই প্রকল্পটি চালিয়ে যাওয়ার জন্য লিখিতভাবে আমরা অনুরোধ জানিয়েছি। তা সত্ত্বেও প্রকল্প বন্ধ করা হলে তা অত্যন্ত নিন্দনীয় হবে।"

আরও পড়ুন: ভারতীয় রেলওয়ের বড় খবর কাল থেকে বদলে যাচ্ছে অনেক ট্রেনের টাইম টেবল

প্রসঙ্গত, দেশজুড়ে লকডাউনের পর গত বছর মার্চে কেন্দ্রের তরফে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনা ঘোষণা করা হয়। ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সেই মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল। কেন্দ্রের দাবি, দেশের খাদ্য সুরক্ষা মিশনের অধীনে থাকা ৮০ কোটি মানুষ এই প্রকল্পের সুবিধা পেয়েছেন। এবার এই প্রকল্প বন্ধ করতে চলেছে কেন্দ্র। যদিও একাধিক রাজ্য তাদের নিজেদের খরচে এই প্রকল্প চালিয়ে নিয়ে যাবে বলে ঘোষণা করেছে। বাংলায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই ঘোষণা করেছেন যে বিনামূল্যে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প চালু করা হবে এরাজ্যে। অন্যদিকে, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও বসন্তৎসব পর্যন্ত এই প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা করেছেন।

কেন্দ্রীয় খাদ্য সচিবের মন্তব্যের পর কংগ্রেসের তরফে পবন খেরা শনিবার জানিয়েছেন, "দেশ থেকে করোনা অতিমারি এখনও বিদায় নেয়নি। এই পরিস্থিতিতে নরেন্দ্র মোদি সরকারের উচিত গরিব মানুষের জন্য খাদ্যশস্য বিতরণের এই প্রকল্প চালিয়ে যাওয়া।" একই অনুরোধ করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দিল্লিবাসীর জন্য আরও ছ'মাস বিনামূল্যে রেশন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন তিনি।

RAJIB CHAKRABORTY

Published by:Debamoy Ghosh
First published: