Home /News /national /
National Land Monetization Corporation: রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থার অব্যবহৃত জমি বিলগ্নিকরণ করতে ন্যাশনাল ল্যান্ড মানিটাইজেশন কর্পোরেশন

National Land Monetization Corporation: রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থার অব্যবহৃত জমি বিলগ্নিকরণ করতে ন্যাশনাল ল্যান্ড মানিটাইজেশন কর্পোরেশন

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থা বিলগ্নিকরণের জন্য গত অক্টোবরেই ন্যাশনাল মানিটাইজেশন পাইপলাইন ঘোষণা করেছে মোদি সরকার (National Land Monetization Corporation)।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : এবার রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থার মূল সম্পদ নয়, এমন সম্পত্তিও বিক্রি করতে চলেছে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) সরকার। এজন্য 'ন্যাশনাল ল্যান্ড মনিটাইজেশন কর্পোরেশন' তৈরির প্রস্তাবে সম্মতি দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। এই কর্পোরেশনই দেশের রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থাগুলির সম্পত্তি বিক্রির দায়িত্বে থাকবে।

২০২১-২২ অর্থবর্ষের বাজেট ভাষণে রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থার নন কোর সম্পদও বিক্রির ঘোষণা করেছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ (Nirmala Sitharaman)।রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থা বিলগ্নিকরণের জন্য গত অক্টোবরেই ন্যাশনাল মানিটাইজেশন পাইপলাইন ঘোষণা করেছে মোদি সরকার। রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থাগুলিকে বিক্রির মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকারের কোষাগারে ২০২২-২০২৫ পর্যন্ত চার অর্থবর্ষে ৬ লক্ষ কোটি টাকা তোলার লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে মোদি সরকার। যদিও সেই পাইপলাইনে ছিল শুধুমাত্র কোর অ্যাসেট বা মূল সম্পদ। ননকোর অ্যাসেট বা আনুসাঙ্গিক সম্পদ ছিল না সেই তালিকায়।

আরও পড়ুন: ২০১৭-র তুলনায় উত্তরপ্রদেশে এবছর হু হু করে কমল নির্বাচনী হিংসার ঘটনা! দাবি পুলিশের

 'স্পেশাল পারপস ভেইকেল' বা নির্দিষ্ট কয়েকটি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে নন কোর সম্পত্তি বিক্রির অর্থ। বিবৃতিতে এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের বক্তব্য, এর মাধ্যমে বেসরকারি বিনিয়োগ, নতুন করে অর্থনৈতিক নানান কার্যকলাপ, স্থানীয় অর্থনীতিকে চাঙ্গা করা এবং অর্থনৈতিক ও সমাজিক সংস্কারের অক্সিজেন জোগাবে।

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের তরফে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই পদক্ষেপ কেন্দ্রীয় সরকারের ঘোষিত রাষ্ট্রয়ত্ব সংস্থার বেসরকারিকরণ বা কৌশলগত বিলগ্নিকরণে গতি আনবে। তার জন্য তৈরি করা এই ন্যাশনাল ল্যান্ড মানিটাইজেশন কর্পোরেশন দেশের রাষ্ট্রয়ত্ব প্রতিষ্ঠানগুলির নন কোর সম্পত্তি চিহ্নিত করা, সেগুলিকে পেশাদারিভাবে বিলগ্নিকরণের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে।

আরও পড়ুন: যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইউক্রেনে আটকে পাকিস্তানি ছাত্রীকে নিরাপদে উদ্ধার ভারতের, কৃতজ্ঞতায় আপ্লুত পড়ুয়া

তৃণমূলের সর্বভারতীয় সহসভাপতি যশবন্ত সিনহা বলেন, "প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমার পরামর্শ, কেন্দ্রীয় সরকারও বিক্রি করে ফেলা হোক। যে ব্যক্তি সরকার চালাবেন, তাঁর থেকে মোটা টাকা পাওয়া যাবে। সেই টাকায় আনন্দ, ফূর্তি করা যাবে। সবকিছু যখন বিক্রিই করা হবে, তখন ভারত সরকার রেখেই বা কী লাভ?"

আসন্ন বাজেট অধিবেশনের দ্বিতীয় পর্বে বিষয়টি নিয়ে কংগ্রেস সোচ্চার হবে বলে জানিয়েছেন লোকসভার নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন, "কেন্দ্রে বিক্রির সরকার চলছে। প্রধানমন্ত্রী বারবার বলেন কংগ্রেস কিছু করেনি। অথচ, কংগ্রেস ৭০ বছরে কাজ করেছিল বলেই আজ তারা সেই সব সম্পত্তি বিক্রি করতে পারছে।"

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

পরবর্তী খবর