Home /News /national /

Rakesh Asthana Appointment Controversy: রাকেশ অস্থানাকে দিল্লি পুলিসের প্রধান পদে বসানো হয়েছে জাতীয় স্বার্থে ?

Rakesh Asthana Appointment Controversy: রাকেশ অস্থানাকে দিল্লি পুলিসের প্রধান পদে বসানো হয়েছে জাতীয় স্বার্থে ?

রাকেশ আস্থানা৷

রাকেশ আস্থানা৷

গত ২৭ জুলাই রাকেশ আস্থানাকে দিল্লি পুলিশ কমিশনার পদে নিয়োগ করে মোদি সরকার (Rakesh Asthana Appointment Controversy)।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : আবার জাতীয় নিরাপত্তা ! রাকেশ আস্থানা নিয়োগ মামলায় জাতীয় নিরাপত্তাকে ইস্যু করল মোদি সরকার। আজ, বুধবার সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) হলফনামা পেশ করে কেন্দ্রীয় সরকার উল্লেখ করেছে, "কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল দিল্লিতে আইনশৃঙ্খলা যে পরিস্থিতিতে রয়েছে, সেখানে পুলিশি ব্যবস্থা কার্যকরী করে তুলতে" রাকেশ অস্থানাকে নিয়োগ করা প্রয়োজন ছিল।

রাকেশ অস্থানাকে (Rakesh Asthana) দিল্লি পুলিশের প্রধান পদে বসানোর পক্ষে সেই জাতীয় নিরাপত্তা ইস্যুকেই হাতিয়ার করল কেন্দ্রীয় সরকার। জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে কার্যকরী পুলিশি ব্যবস্থা গড়ে তুলতে তাঁকে নিয়োগ করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে খুবই চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে মনে করছে কেন্দ্রীয় সরকার, রাকেশ আস্থানার নিয়োগের পক্ষে এই যুক্তি দিয়েছে কেন্দ্র।

আরও পড়ুন: সুস্মিতা দেব, প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদীর সুরেই সওয়াল! বড় অভিযোগ নিয়ে এবার সরব স্বাতী মালিওয়াল...

গত ২৭ জুলাই রাকেশ আস্থানাকে দিল্লি পুলিশ কমিশনার পদে নিয়োগ করে মোদি সরকার। সেই নিয়োগের বিরোধিতা করে একাধিক মামলা দায়ের হয় শীর্ষ আদালতে। হলফনামায় মোদি সরকার উল্লেখ করেছে, জনস্বার্থে রাকেশ আস্থানকে আন্ত:রাজ্য ক্যাডারের পাশাপাশি চাকরির জীবনের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে। রাকেশ আস্থানার বদলি এবং তাঁর নিয়োগের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা খারিজ করার আবেদন জানায় কেন্দ্রীয় সরকার।

আরও পড়ুন: মোদি ফিরতেই আসরে তৃণমূল, ২০২৩-এর লক্ষ্যে আজ বড় অভিযান ঘাসফুলের!

আবেদনকারী এনজিও-র বিরুদ্ধে তোপ দেগে মোদি সরকার হলফনামায় উল্লেখ করেছে, "২০০৬ সাল থেকে রাকেশ আস্থানার আগে মোট আটজন পুলিশ কমিশনার একই প্রক্রিয়ায় নিয়োগ করা হয়েছে। সেই সমস্ত দিল্লি নিয়োগের বিরুদ্ধে কখনও কোনও আপত্তি আসেনি।"

গত বছর ২৮ জুলাই দিল্লি পুলিশ কমিশনার পদে বসেন রাকেশ আস্থানা। তাঁর নিয়োগের বিরোধিতা করে অগাস্টে মামলা দায়ের হয় শীর্ষ আদালতে। তাঁর নিয়োগ অবৈধ বলে সওয়াল করা হয় মামলাকারীদের তরফে। রাকেশ আস্থানার নিয়োগের পক্ষে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, তাঁকে নিয়োগের যথেষ্ট কারণ রয়েছে। এছাড়াও চাকরি জীবনের ছ' মাস বাকি থাকতে কোনও পুলিশ আধিকারিক কেবলমাত্র কোনও রাজ্যের ডিরেক্টর জেনারেল অথবা পুলিশ প্রধান পদে আবেদন করতে পারবেন, কোনও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের পুলিশ প্রধান পদে আবেদন করতে পারবেন না, এমন কোনও নিয়ম নেই।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Delhi, Supreme Court

পরবর্তী খবর