দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

অসম-মিজোরাম সীমান্তে তুমুল সংঘর্ষ, আগুন! তড়িঘড়ি বৈঠক ডাকল কেন্দ্র

অসম-মিজোরাম সীমান্তে তুমুল সংঘর্ষ, আগুন! তড়িঘড়ি বৈঠক ডাকল কেন্দ্র
এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক নিরাপত্তা বাহিনী৷

এলাকায় শান্তি ফেরাতে ইতিমধ্যেই অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী জোরামথাংগার সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন৷

  • Share this:

#গুয়াহাটি: দুই রাজ্যের বাসিন্দাদের মধ্যে সংঘর্ষের জেরে অসম- মিজোরাম সীমান্তে তীব্র উত্তেজনা ছড়াল৷ ঘটনায় দুই পক্ষেরই বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন৷ শনিবার সন্ধ্যায় অসমের কাছার জেলার লায়লাপুর এলাকায় এই সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে৷ পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ আকার ধারণ করে যে বেশ কিছু বাড়িতেও আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়৷ বিপুল সংখ্যক নিরাপত্তা বাহিনী পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হয়৷

এলাকায় শান্তি ফেরাতে ইতিমধ্যেই অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী জোরামথাংগার সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন৷ পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর দফতর এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককেও সর্বশেষ পরিস্থিতি জানিয়েছে অসম সরকার৷ পরিস্থিতির গুরুত্ব বিচার করে সোমবারই তড়িঘড়ি দুই রাজ্যের মুখ্যসচিবদের নিয়ে বৈঠক ডেকেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় কুমার ভল্লা৷ মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে আলোচনায় অসমের মুখ্যমন্ত্রীও সীমান্ত এলাকায় শান্তি ফেরাতে যৌথ উদ্যোগের উপরে জোর দিয়েছেন৷

মিজোরামের সঙ্গে অসমের ১৬৪.৬ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে৷ দুই রাজ্যের মধ্যে সীমান্ত বিবাদ দীর্ঘদিনের সমস্যা৷ মিজোরামের বাসিন্দাদের তরফে অভিযোগ, করোনা অতিমারির সময় বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারীদের মিজোরামে প্রবেশ আটকাতে অসম সীমান্তের সাইহাইপুর গ্রামে স্বেচ্ছাসেবক মোতায়েন করা হয়েছে৷ তাঁদের থাকার জন্য তৈরি করা একটি কুঁড়ে ঘর অসমের বাসিন্দারা ভেঙে দেন৷ এই নিয়েই উত্তেজনার সূত্রপাত৷

মিজোরামের ভাইরিংতে এবং অসমের লাইলাপুর গ্রামের বাসিন্দারা এর পরই লাঠিসোটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন৷ অসমের বাসিন্দারা মিজোরামের বাসিন্দাদের লক্ষ্য করে পাথর ছো়ডেন বলে অভিযোগ৷ এর পাল্টা অসমের গ্রামে ঢুকে জাতীয় সড়কের ধারে বেশ কিছু ঘরবাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেন মিজোরামের বাসিন্দারা৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে যে এলাকাগুলিতে সংঘর্ষ ছড়িয়েছে, সেখানে বিশাল সংখ্যক নিরাপত্তাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে দুই রাজ্যের তরফে৷ অন্যদিকে একটি মন্দির নির্মাণকে কেন্দ্র করে মিজোরাম এবং ত্রিপুরা সীমান্তেও গত কয়েকদিন ধরে উত্তেজনা বাড়ছে৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: October 19, 2020, 10:12 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर