• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • এয়ারসেল-ম্যাক্সিস মামলায় পি চিদম্বরমের বিরুদ্ধে নতুন করে চার্জশিট দাখিল করল সিবিআই

এয়ারসেল-ম্যাক্সিস মামলায় পি চিদম্বরমের বিরুদ্ধে নতুন করে চার্জশিট দাখিল করল সিবিআই

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পিএ চিদম্বরম (ফাইল ছবি)

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পিএ চিদম্বরম (ফাইল ছবি)

মোদি সরকারের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবের বিতর্কে আগামিকাল লোকসভায় বক্তব্য রাখবেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি ৷ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে মোদি বনাম রাহুলের লড়াইয়ের একটি ট্রেলার শুক্রবার দেখা যাবে বলে মনে করা হচ্ছিল ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: মোদি সরকারের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবের বিতর্কে আগামিকাল লোকসভায় বক্তব্য রাখবেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি ৷ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে মোদি বনাম রাহুলের লড়াইয়ের একটি ট্রেলার শুক্রবার দেখা যাবে বলে মনে করা হচ্ছিল ৷ কিন্তু ঠিক তার আগেই বিপাকে পড়ল কংগ্রেস ৷ এয়ারসেল ম্যাক্সিস মামলায় জড়িত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের বিরুদ্ধে নতুন করে চার্জশিট দাখিল করল সিবিআই ৷ আজ দিল্লি আদালতে চার্জশিট পেশ করা হয়েছে ৷ ৩১ জুলাই ফের মামলার শুনানি ৷

    এয়ারসেল-ম্যাক্সিস মামলা আর্থিক নয়ছয়ের অভিযোগ ওঠে চিদম্বরমের বিরুদ্ধে ৷ সেই মামলাতেই আজ নতুন করে চার্জশিট পেশ করল সিবিআই ৷ অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন নিজের ক্ষমতার অপব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে চিদম্বরমের বিরুদ্ধে ৷ চিদম্বরমের পাশাপাশি এই মামলাতেই নাম জড়িয়েছে তাঁর ছেলে কার্তি চিদম্বরমেরও ৷

    আরও পড়ুন:  ট্রেনেও বিমানের অনুভূতি পেতে নয়া পরিষেবা আনল ভারতীয় রেল

    বৃহস্পতিবার দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে এয়ারসেল ম্যাক্সিস মামলায় একটি নতুন চার্জশিট দাখিল করেছে সিবিআই । এই নয়া চার্জশিটে পি চিদম্বরম ছাড়াও নাম জড়িয়েছে আরও দু’জন সরকারি কর্মীর ৷

    প্রসঙ্গত, এয়ারসেল-ম্যাক্সিস মামলায় পি চিদম্বরমকে ৫ জুন প‌র্যন্ত গ্রেফতার না করার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত ৷ যথাযথ প্রমাণের অভাবে দু’বার পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল শুনানি ৷ গত ফেব্রুয়ারি মাসে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করেছিল সিবিআই। এদিকে, কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার অভি‌যোগ মন্ত্রী থাকাকালীন এয়ারসেল-ম্যাক্সিস ডিলে ছেলেকে কিছু সুবিধে পাইয়ে দিয়েছিলেন চিদম্বরম ।

    মরিসাসের একটি কেম্পানি ৮০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করতে চেয়েছিল এয়ারসেলে। এজন্য ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন বোর্ডের অনুমোদনের প্রয়োজন ছিল। সেই অনুমোদন দেন চিদম্বরম। সিবিআইএয়ের অভি‌যোগ, ওই অনুমোদন মেলার পরই এয়ারসেল টেলিভেঞ্চার লিমিটেডের পক্ষ থেকে ২৬ লাখ টাকা দেওয়া হয় এএসসিপিএল-কে। এই এএসসিপিএলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল কার্তি চিদম্বরমের।

    First published: