corona virus btn
corona virus btn
Loading

আপনার ভোটই আপনার কণ্ঠস্বর – সকলকে তা শুনতে দিন

আপনার ভোটই আপনার কণ্ঠস্বর – সকলকে তা শুনতে দিন
File Photo
  • Share this:

RP Sanjiv Goenka Group এবং News18 India গ্রুপের পক্ষ থেকে একটি প্রচার কর্মসূচা সংগঠিত করা হয়েছে যাতে সারা ভারতবর্ষ জুড়ে সমগ্র ভারতবাসীর কাছে এই চলতি সাধারণ নির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য আবেদন জানানো হয়েছে।

News18 India -এর পক্ষ থেকে প্রতীক ত্রিবেদী ঝাড়খন্ডের রাজধানী রাঁচী পৌঁছান যেখানে তিনি ভোট চলাকালীন জনগণের মনোভাব বোঝার চেষ্টা করতে চেয়েছিলেন। জনগণের মধ্যে আনন্দ ও প্রেরণা জাগানোর জন্য তিনি রাঁচী ও ধানবাদের রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেরিয়েছেন এবং সকলকে আবেদন জানিয়েছেন যাতে সকলেই তাদের অমূল্য ভোট যেন কোনভাবেই নষ্ট না করে প্রত্যেকে যেন আবশ্যিকভাবে ভোটদান করেন।

রাঁচী ও ধানবাদের লোকজনের সাথে প্রতীক ত্রিবেদী যেন একটা যোগসূত্র তৈরী করতে পারছিলেন যেখানে তিনি সকলের সাক্ষাতকার নিতে পারছিলেন এবং সাধারণ মানুষদেরকে বোঝাতে পারছিলেন যে যেকোন দেশের নাগরিক তার ভোটদানের মাধ্যমে তার দেশকে সহযোগিতা করে। গণতন্ত্র হলো জনগণের জন্য এবং জনগণের দ্বারা পরিচালিত সরকার। যেকোন দেশের গণতন্ত্রে সেই দেশের নাগরিকবৃন্দ যখন তাদের ভোট প্রদান করে তার মধ্যে দিয়ে জনগনের স্বরুপ প্রকাশিত হয়। ভোটই হলো জনগণের কণ্ঠস্বর এবং নির্বাচনের সময়ে সেটি সোচ্চারে ও সুস্পষ্টভাবে প্রকাশিত হওয়া উচিত।

আপনার ভোট না দেওয়ার প্রভাব

যখন আপনি কোনো নির্বাচনে আপনি নিজে ভোটদান করেন না, তখন আপনি সরকার ও নির্বাচির আধিকারিকদের বিরুদ্ধে আপনার অভিযোগ জানানোর অধিকার হারিয়ে ফেলেন। সরকারী বিভিন্ন নীতিগুলি যেগুলি আপনার প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেন না তার কারণই হলো আপনার উদাসীনতা ও অনাগ্রহ।

আপনি আপনার দেশেই নীরব রয়ে গেলেন এবং অদক্ষ সরকারের হাতের পুতুল হয়ে উঠলেন। আপনার অংশগ্রহণ ব্যতীত কখনই আপনার চাহিদা ও প্রয়োজনীয়তাগুলি উপলব্ধি করা যাবে না বা উদ্দেশ্য পূরণ হবে না।

ভোটদান করার সুবিধাবলি

ভোটদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং আপনার একটি ভোটই, যা আপনি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে প্রয়োগ করেন, সেটি জাতির ক্ষেত্রে বিরাট পরিবর্তন আনতে পারে। উন্নততর শিক্ষা, আরো চাকরী, উন্নততর স্বাস্থ্যপরিচর্যা, উন্নততর পরিকাঠামো এবং কর ব্যবস্থার সুগঠিত আইন ও সেগুলির উপযুক্ত প্রয়োগ – এসবই হলো দায়িত্বপূর্ণ ভোটদান প্রক্রিয়ার ফলাফল।

আমরা এমন একটি সরকারকে ক্ষমতায় আনতে পারি যারা নাগরিকবৃন্দের উন্নততর ও শ্রেষ্ঠতর জীবনযাত্রার পরিবর্তন আনার ক্ষেত্রে সদর্থক ভূমিকা নেবে। প্রতিটি নাগরিকের ভোট শক্তিশালীভাবে সরকার পরিচালনে সাহায্য করে এবং দ্রুততার সঙ্গে দেশকে আরো শক্তিশালী করে তোলার দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যায় এবং নাগরিকদের ভবিষ্যতকে সুরক্ষিত করে।

উপসংহার

ভোটদান হলো একটি সাংবিধানিক অধিকার এবং প্রতিটি নাগরিকের মৌলিক বাধ্যবাধকতা। এটিকে অত্যন্ত য্ত্ন সহকারে, বুদ্ধি ও সঠিক বিবেচনার মাধ্যমে সন্মান প্রদর্শন করা উচিত। আমাদের মনে রাখা উচিত যে আমরা আমাদের ভোটদানের মাধ্যমে শুধুমাত্র সরকারকে নির্বাচিত করি না, কিন্তু আমরা যতই ক্ষুদ্র হইনা কেন সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সরকার আমাদের দ্বারা নির্বাচিত হয়। অন্যদেরকে আপনার হয়ে তা নির্বাচন করার অধিকার দেবেন না। আপনার ভোটই হলো আপনার কণ্ঠস্বর – এটিকে সোচ্চারে ও সুস্পষ্টভাবে শোনা যাক।

পঞ্চম পর্যায়ে ঝাড়খন্ডের ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হলো। এই পঞ্চম পর্যায়ে মোট ভোটদানের হার ছিল 63.500 শতাংশ। ঝাড়খন্ডে ভোটদানের এই হার 65.17 শতাংশ ও ধানবাদে এই হার ছিল 61.90 শতাংশ।

বাটন দাবাও, দেশ বানাও হলো Network18-র পক্ষ থেকে নেওয়া একটি উদ্যোগ, যা আরপি-সঞ্জীব গোয়েঙ্কা গ্রুপের পক্ষ থেকে উপস্থাপন করা হয়েছে যাতে দেশের এই সাধারণ নির্বাচনে প্রত্যেক ভারতীয়কে তার নিজের ভোটদান করার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াতে #ButtonDabaoDeshBanao হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা বিভিন্ন মতামতগুলি পড়তে পারেন।

First published: May 18, 2019, 4:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर