প্রয়াত প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বুটা সিং, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী, রাহুল গান্ধির

প্রয়াত প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বুটা সিং, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী, রাহুল গান্ধির

দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত শারীরিক সমস্যায় ভূগছিলেন তিনি, বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর

দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত শারীরিক সমস্যায় ভূগছিলেন তিনি, বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: প্রয়াত প্রাক্তন কেন্দ্রীয় গৃহমন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা বুটা সিং। বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত শারীরিক সমস্যায় ভূগছিলেন তিনি। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ এইমস-এ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

    তাঁর মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ট্যুইটে শোকবার্তায় মোদি লিখেছেন,'বুটা সিং অত্যন্ত অভিজ্ঞ প্রশাসক ছিলেন। দুস্থদের জন সবসময় সরব হয়েছেন তিনি। তাঁর প্রয়াণে আমি মর্মাহত। তাঁর পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।'

    প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর প্রয়াণে শোক প্রকাশ করেছেন কংমগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধিও। তিনি ট্যুইটে লেখেন, 'দেশ একজন প্রকৃত প্রশাসক ও অনুগত নেতাকে হারালো। বুটা সিংজি তাঁর জীবন দেশ ও দেশবাসীর সেবায় নিবেদন করেছিলেন। তাঁর কাজের জন্য সর্বদা তিনি স্মরণে থাকবেন।'

    রাজনৈতিক জীবনের শুরুতে প্রথম নির্বাচনে অকালি দলের হয়ে লড়লেও পরে কংগ্রেসে যোগ দেন বুটা সিং। ১৯৬২ সালে সাধনা লোকসভা আসন থেকে প্রথমবারের জন্য লোকসভায় নির্বাচিত হয়ে আসেন তিনি। তারপর ক্রমে তাঁর রাজনীতিক উথ্থান ঘটে। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীই পদেও ছিলেন তিনি। তার আগে ১৯৮৪ থেকে ১৯৮৬ পর্যন্ত তিনি কৃষিমন্ত্রী ছিলেন। পরবর্তীকালেও রাজনীতি ও প্রশাসনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বুটা। ২০০৭ থেকে ২০১০ পর্যন্ত তফশিলি জাতি সংক্রান্ত জাতীয় কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি। এছাড়া ‘অপারেশন ব্লুস্টার’-এর পরবর্তী সময়ে স্বর্ণমন্দিরকে ফের গড়ে তোলার পিছনে তাঁর যথেষ্ট অবদান ছিল।

    তাঁর প্রয়াণের খবর পেয়ে ট্যুইট করে শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ আর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ বহু বিশিষ্ট ব্যক্তি।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    লেটেস্ট খবর