Home /News /national /
আজ অষ্টমী, কালনায় সাড়ম্বরে চলছে চারদিনের মহিষমর্দিনী পুজো

আজ অষ্টমী, কালনায় সাড়ম্বরে চলছে চারদিনের মহিষমর্দিনী পুজো

মহিষমর্দিনী পুজো

মহিষমর্দিনী পুজো

Burdwan News: বার্ষিক এই উৎসব ও পুজোর বাতাবরণ শান্তিপূর্ণ রাখতে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। কালনার মূল দুটি ঘাট ছাড়া অন্য সব ঘাটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। বেশ কিছু রাস্তা ওয়ান ওয়ে করা হয়েছে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#বর্ধমান: কালনায় সাড়ম্বরে শুরু হয়ে গেল এবারের মহিষমর্দিনী পুজো। চারদিনের এই পুজোর আজ শুক্রবার ছিল অষ্টমী। প্রাণিসম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এবারের পুজোর উদ্বোধন করেন। মহিষমর্দিনী পুজো উপলক্ষে এখন উৎসব মুখর মন্দির শহর কালনা।

মহিষমর্দিনী পুজোর জন্য সারা বছরের অপেক্ষায় থাকেন কালনা শহরের বাসিন্দারা। এই শহরে দুর্গা পুজোর থেকেও বেশি উন্মাদনা দেখা যায় এই মহিষমর্দিনী পুজোকে কেন্দ্র করে। জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তো বটেই পাশের নদীয়া, মুর্শিদাবাদ, হুগলি জেলা সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দর্শনার্থীরা এই পুজো দেখতে আসেন। গত দু'বছর করোনার কারণে নিয়মরক্ষার পুজো হয়েছিল। এবার দর্শনার্থীদের ঢল নামবে বলে মনে করছে প্রশাসন।

আরও পড়ুন : আচমকা নার্সিং কলেজে স্কুটি নিয়ে হাজির Arijit Singh! আসল 'কারণ' শুনে ধন্য ধন্য রব উঠল জিয়াগঞ্জে

বার্ষিক এই উৎসব ও পুজোর বাতাবরণ শান্তিপূর্ণ রাখতে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। কালনার মূল দুটি ঘাট ছাড়া অন্য সব ঘাটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। বেশ কিছু রাস্তা ওয়ান ওয়ে করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : চরম দুঃসময়ে মেয়ের সঙ্গে কথা অনুব্রতর! প্রধান প্রশ্ন, 'দল কী বলছে?'

আড়াইশো বছর ধরে শ্রাবণ মাসের নির্দিষ্ট তিথিতে কালনায় এই মহিষমর্দিনী পুজো হয়ে আসছে। কালনা তখন ছিল অন্যতম প্রধান নদী বন্দর। এখান থেকেই চাল-সহ অন্যান্য সামগ্রী নদীপথে রফতানি হত। স্বপ্নাদেশ পেয়ে এক ব্যবসায়ী মা মহিষমর্দিনীর কাঠামো উদ্ধার করেন ভাগীরথী থেকে। সেই কাঠামো নিয়ে হোগলা পাতার ছাউনিতে পুজো শুরু করেন এলাকার ব্যবসায়ীরা। ব্যবসার একটি লভ্যাংশ তারা পুজোর জন্য রেখে দিতেন। সেই প্রথা আজও চলে আসছে। মা মহিষমর্দিনী দুর্গার এক রূপ।তাই এই পুজোর মধ্য দিয়ে শারদ উৎসবের সূচনা হয়ে গেল বলাই যায়।

করোনা এখনও বিদায় নেয়নি। তাই পুজো উপলক্ষে উদ্যোক্তাদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে প্রশাসন। তাই একসঙ্গে যাতে অনেক বেশি দর্শনার্থী ভিড় না করেন সেদিকে নজর রাখতে বলা হয়েছে। এছাড়াও পুজো মন্দির চত্বরে পর্যাপ্ত মাস্ক ও স্যানিটাইজার রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Burdwan news, Kalna

পরবর্তী খবর