• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • BUDGET 2018 19 ARUN JAITLEY MAY HIKE INCOME TAX EXEMPTION LIMIT FROM RS 2 5L TO RS 3L OR MORE

বাজেটে আয়করে বিপুল ছাড়ের ইঙ্গিত, কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বেড়ে হতে পারে ৩ লাখ বা তারও বেশি

Arun Jaitley

বাজেটে আয়করে বিপুল ছাড়ের ইঙ্গিত, কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বেড়ে হতে পারে ৩ লাখ বা তারও বেশি

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ফের অচ্ছে দিন-এর স্বপ্ন নিয়ে হাজির হতে চলেছে মোদি সরকারের বাজেট ৷ ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষের বাজেটে মধ্যবিত্তকে স্বস্তির বার্তা দিতে পারেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি ৷ এবারের বাজেটে বাড়তে পারে আয়করের উর্ধ্বসীমা ৷

    ২০১৯-এর ভোটের আগে ১ ফেব্রুয়ারি শেষ পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। দেশের সবথেকে বড় ভোট ব্যাঙ্ক অর্থাৎ মধ্যবিত্তের মন পেতে চেষ্টার খামতি রাখতে চায় না মোদি সরকার ৷ মধ্যবিত্তের উপর থেকে করের বোঝা কমানোর জন্য চলতি বছরের বাজেটে আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা বাড়িয়ে ২.৫ লক্ষ থেকে বেড়ে ৩ লক্ষ কিংবা তারও বেশি করতে পারে অর্থমন্ত্রক ৷ এছাড়াও ৮০সি ধারায়ও করছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা বাড়ানো হতে পারে ৷ ১.৫ লক্ষ থেকে ঊর্ধ্বসীমা হতে পারে ২ লক্ষ ৷ দেশের মোট জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ, মধ্যবিত্ত শ্রেণীর কথা ভেবে গৃহঋণেও সুদের সীমা বাড়াতে পারে অর্থমন্ত্রক ৷ বর্তমানে গৃহঋণের উর্ধ্বসীমা ২ লক্ষ ৷ যা বেড়ে ৩ লক্ষ করা হতে পারে বলে ইঙ্গিত মিলেছে রিপোর্টে ৷

    শেষ বছর আয়করের উর্ধ্বসীমায় কোনও পরিবর্তন করেনি কেন্দ্র ৷ বরং আয় কমিয়ে দেখানোয় বাড়য়েছিল জরিমানার পরিমাণ ৷ নতুন ব্যবসা শুরু করলে ১০০ শতাংশ কর ছাড় ৷ আয় বছরে ৫ লক্ষ টাকার কম হলে তাদের ৩ হাজার টাকা ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয় ৷ এছাড়া বাড়িভাড়ায় করছাড়ের উর্ধ্বসীমা বছরে ২৪ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৬০ হাজার টাকা করা হয়েছিল ৷

    শুধু আয়কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বাড়ানো নয়, ব্যাঙ্কের হাতে টাকার যোগান বাড়ানোর উদ্দেশ্যে সেভিংস ও মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষেত্রে আয়কর ছাড় দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে অর্থমন্ত্রক ৷ শেয়ার বাজারে লগ্নিতেও মিলতে পারে বাড়তি কর ছাড় ৷

    অন্যদিকে, সরকারি কোষাগারে দুর্দশাও চিন্তায় রেখেছে মোদি সরকারকে ৷ আগামী অর্থবর্ষে আর্থিক বৃদ্ধির পূর্বাভাস ৬.৫ শতাংশে নামিয়ে আনতে বাধ্য হয়েছে কেন্দ্র। জিএসটি চালুর পর বৃদ্ধির হার ৭.৫ শতাংশে পৌঁছবে বলে আশা ছিল অর্থমন্ত্রীর ৷ কিন্তু কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান দফতরের সদ্য প্রকাশিত তথ্য বলেছে, আগামী অর্থবর্ষে বৃদ্ধির হার কমে ৬.৫ শতাংশ হতে পারে। সরকারি যে পরিসংখ্যান দেওয়া হয়েছে তাতে মাথাব্যাথার ক্ষেত্র বেশ কয়েকটি। আগামী অর্থবর্ষে কৃষি, কল-কারাখানায় উৎপাদন, মাথাপিছু জিডিপি সব কিছুর পূর্বাভাসই পড়তির দিকে। এমতাবস্থায় বাজেটের রূপরেখা নির্ধারণই এখন সরকারের সবচেয়ে বড় টাস্ক ৷

    First published: