• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • দেশ
  • »
  • BOLLYWOOD ACTOR JUHI CHAWLA STRONGLY AGAINST IMPLEMENTATION OF 5G TECHNOLOGY AS SHE FILES PLEA IN COURT RRC

5G Network চালুর বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন জুহি চাওলার

৫ জি নিয়ে আদালতের দরজায় জুহি

জুহি চাওলা সম্প্রতি এই ৫ জি নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি প্রয়োগের বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন করেছেন। অ্যাডভোকেট দীপক খোসলার মাধ্যমে দায়ের করা ওই আবেদনে অভিনেত্রী এর বিরূপ প্রভাবের কথা তুলে ধরেছেন

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বিজ্ঞান আশীর্বাদ না অভিশাপ ? এই প্রশ্ন নতুন নয়। ৫ জি নেটওয়ার্ক হয়তো কয়েকদিনের মধ্যেই শুরু হয়ে যাবে দেশজুড়ে। মানুষের জীবন এই প্রযুক্তির ফলে আরও সহজ এবং দ্রুত হয়ে উঠবে। কিন্তু এর ফলে কী মূল্য চোকাতে হবে মানবজাতিকেই ? প্রশ্নটা ফেলে দেওয়ার নয়। জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী জুহি চাওলা সম্প্রতি এই ৫ জি নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি প্রয়োগের বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন করেছেন।

    অ্যাডভোকেট দীপক খোসলার মাধ্যমে দায়ের করা ওই আবেদনে অভিনেত্রী এর বিরূপ প্রভাবের কথা তুলে ধরেছেন। স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে এই নেটওয়ার্ক চালু হলে ক্ষতিকারক RF তেজস্ক্রিয়তার ফলে প্রাণীজগতে মারাত্মক প্রভাব পড়বে। মানুষ, জীবজন্তু, উদ্ভিদ জগতে বড় ক্ষতি অপেক্ষা করছে। এই ক্ষতি বর্তমান স্তরের তুলনায় অনেক বেশি হবে এবং বিকিরণ প্রক্রিয়া বিভিন্ন জটিল রোগ ছড়াবে।

    এর ফলে আধুনিক সভ্যতার প্রধান রোগের মধ্যে ক্যান্সার, হৃদরোগ এবং ডায়াবেটিস বেড়ে যাবে আরও কয়েকগুণ। মূল অংশগুলো বর্ণনা করার জন্য উদ্ভিদ এবং প্রাণীর ডিএনএ, কোষ এবং অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের ক্ষয়ক্ষতির ক্লিনিক্যাল এবং পরীক্ষামূলক প্রমাণের উল্লেখ করা হয়েছে। অভিনেত্রীর মুখপাত্র জানিয়েছেন মামলাটি আদালতের কাছে পেশ করা হয়েছে সমগ্র মানব জাতির স্বার্থে।

    পুরুষ, মহিলা থেকে শুরু করে প্রাপ্ত বয়স্ক, শিশু, বিভিন্ন প্রাণী এবং উদ্ভিদ জগতের জন্য নিরাপত্তা একান্তই কাম্য। উল্লেখ্য ইংল্যান্ড, আমেরিকা, চিন এবং অস্ট্রেলিয়ায় ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে ৫ জি নেটওয়ার্ক। তবে নতুন ধরনের এই নেটওয়ার্ক যত বিস্তৃত হচ্ছে, তা সম্পর্কে মানুষের মনে তত ভুল ধারণার জন্ম নিচ্ছে। ২০২৩ সাল নাগাদ বিশ্বব্যাপী প্রায় ১০০ কোটি ফাইভ-জি গ্রাহক তৈরি হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

    ফাইভ-জি শুধু দ্রুতগতির নেটওয়ার্কই এনে দেবে না, চালকবিহীন গাড়ি, ড্রোন, ইন্টারনেট ভিত্তিক সহ নানা প্রযুক্তিও এগিয়ে যাবে এর সুবাদে। বলা হচ্ছে, ফাইভ-জি বিশ্বব্যাপী বহু মানুষের জীবনে পরিবর্তন আনবে। সুতরাং তা নিয়ে কিছু প্রশ্ন যে থাকবে, তা-ই স্বাভাবিক। এর বেতার তরঙ্গের তেজস্ক্রিয়তার ফলে ক্যান্সার হতে পারে এমন সম্ভাবনা অমূলক নয়। ২০১১ সালে এক প্রতিবেদনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ইঙ্গিত দিয়েছিল। তাই জুহি চাওলার এই আবেদনের জবাব কোর্ট কীভাবে দেয় সেটাই দেখার।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: