বিহারে ভোটের চিত্র পরিষ্কার হওয়ার আগেই বর্ধমানে উল্লাস বিজেপি-র

এনডিএ নাকি মহাজোট? বিহারে বিধানসভা নির্বাচনে শেষ হাসি কারা হাসবে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আরও কয়েক ঘণ্টা। তবে ধৈর্য আর ধরতে পারলেন না বর্ধমানের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। বিকেলের পর থেকে জয় নিশ্চিত ধরে নিয়ে আনন্দে উল্লাসে মেতে উঠেছেন তাঁরা

এনডিএ নাকি মহাজোট? বিহারে বিধানসভা নির্বাচনে শেষ হাসি কারা হাসবে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আরও কয়েক ঘণ্টা। তবে ধৈর্য আর ধরতে পারলেন না বর্ধমানের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। বিকেলের পর থেকে জয় নিশ্চিত ধরে নিয়ে আনন্দে উল্লাসে মেতে উঠেছেন তাঁরা

  • Share this:

#বর্ধমান: এনডিএ নাকি মহাজোট? বিহারে বিধানসভা নির্বাচনে শেষ হাসি কারা হাসবে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আরও কয়েক ঘণ্টা। তবে ধৈর্য আর ধরতে পারলেন না বর্ধমানের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। বিকেলের পর থেকে জয় নিশ্চিত ধরে নিয়ে আনন্দে উল্লাসে মেতে উঠেছেন তাঁরা। যদিও বিজেপি বিরোধীরা বলছেন, এখনও অনেক গণনা বাকি। রাত বাড়লে চিত্রটা অনেকটাই বদলে যাবে এমন আশায় বুক বাঁধতে চাইছেন তাঁরা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বর্ধমানের ডিভিসি মোড়ের কাছে বিজেপি জেলা অফিস থেকে নেতাকর্মীরা বাইক মিছিল বের করেন। কপালে গেরুয়া তিলক কেটে বিশাল গেরুয়া পতাকা নিয়ে মোটর সাইকেলে শহর পরিক্রমা করেন তাঁরা। কয়েকশো মোটর সাইকেল শহরে দাপিয়ে বেড়ায়। বিজেপি কর্মীরা 'ভারত মাতাকি জয়' স্লোগান দিতে থাকেন। এর পাশাপাশি সন্ধ্যায় বর্ধমানে বিজেপির জেলা কার্য্যালয়েও চলে আবির খেলা, মিষ্টিমুখ। গেরুয়া আবির নিয়ে একে অপরকে রাঙিয়ে দেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা।

সকাল থেকেই বিজেপির জেলা কার্য্যালয়ে  ছিল কর্মী নেতাদের ভিড়। চোখ রেখেছিলেন নিউজ চ্যানেলে। বিহারের নির্বাচনের ফলাফল জানতে উদগ্রীব ছিলেন সকলেই। প্রথমদিকে সমান সমান ফলাফল দেখে নিশ্চুপ ছিলেন কর্মী নেতারা। এরপর বেলা বাড়ার পর থেকে দিনভর এগিয়ে থেকেছে এনডিএ। বিকেলের পর সরকার গঠন এক প্রকার নিশ্চিত ধরে নিয়ে আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠেন তাঁরা। বিজেপির এক যুব নেতার দাবি, এবার গেরুয়া রঙে রেঙে উঠবে এ রাজ্যও। বিহারের জয় এ'রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে তাদের জয়কে আরও সহজ করে তুলবে। মোটর সাইকেল মিছিল, আবির খেলা মধ্যে দিয়ে সেই বার্তাই দিতে চাইছেন তাঁরা।

SARADINDU GHOSH

Published by:Rukmini Mazumder
First published: