দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজীব গান্ধি ফাউন্ডেশনে চিনের টাকা! এবার সনিয়াকে বিশ্বাসঘাতক বলে চরম আক্রমণ নাড্ডার

রাজীব গান্ধি ফাউন্ডেশনে চিনের টাকা! এবার সনিয়াকে বিশ্বাসঘাতক বলে চরম আক্রমণ নাড্ডার
জেপি নাড্ডা

ইউপিএ জমানাকে নিশানা জেপি নাড্ডার, আক্রমণ বাড়িয়ে সরাসরি সনিয়ার স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলল বিজেপি

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিজেপির পাল্টা গুগলি। কংগ্রেসের পিএম কেয়ার নিয়ে অভিযোগের পাল্টা বিজেপির রাজীব গান্ধি ফাউন্ডেশন। রাজীবের নামাঙ্কিত সংস্থাকে ৩ লক্ষ ডলার অর্থসাহায্য চিনা দূতাবাসের! ফের কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার। শুক্রবার আরও আক্রমণের তেজ বাড়িয়ে এবার সরাসরি সনিয়া গান্ধির স্বচ্ছতা নিয়েই প্রশ্ন তুললেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।

চিনা দূতাবাস থেকে প্রাপ্ত অর্থ নিয়েই এদিন গান্ধি পরিবারের বিরুদ্ধে আরও একবার প্রবল আক্রমণের পথে বিজেপি ৷ দেশের মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে কংগ্রেস, তোপ বিজেপির ৷ সর্বভারতীয় সভাপতি নাড্ডা এদিন ট্যুইটে বলেন, PMNRF (প্রধানমন্ত্রী জাতীয় ত্রাণ তহবিল) এর মাধ্যমে ইউপিএ জমানায় রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশনকে অর্থ দান করেছিল।  PMNRF বোর্ডের মাথায় কে বসেছিলেন? সনিয়া গান্ধি। RGF-র (রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন) কে সভাপতিত্ব করেন? সনিয়া গান্ধি। এটা চূড়ান্ত ভাবে নিন্দনীয় এবং স্বচ্ছতা নিয়েও একাধিক প্রশ্ন থেকে যায়। "

এখানেই শেষ নয় নাড্ডার কথায়, ‘দেশের মানুষের কষ্ট করে আয় করা অর্থ দেশের দুর্দিনে কাজে লাগার জন্য দান করেছিলেন কিন্তু রাজনীতির ময়দানের মতোই জনসাধারণের টাকা পারিবারিক সম্পত্তিতে পরিণত করা হয়েছে ৷ এটা জালিয়াতি নয় ৷’

বিজেপির অভিযোগ, ভারতের চিনা দূতাবাস থেকে অনুদান পেয়েছে কংগ্রেস পরিচিলিত রাজীব গান্ধি ফাউন্ডেশন। প্রথম ইউপিএ আমলে অর্থাৎ ২০০৫-০৬ সালে এই লেনদেন হয়েছে বলে অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের। এই ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইউপিএ চেয়ারপার্সন সনিয়া গান্ধি। অন্য সদস্যরা হলেন, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, রাহুল গান্ধি আর পি চিদম্বরম।

লাদাখ সীমান্তে চিনা আগ্রাসন নিয়ে সুর চড়িয়েছে কংগ্রেস। সরকার, চিনের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। এমন অভিযোগও তুলেছে তারা। এমনকী পিএম কেয়ার নিয়েও একের পর এক অভিযোগ করেছে কংগ্রেস। হাত শিবিরের সেই অভিযোগের পালটা আক্রমণ বিজেপির।  তাদের দাবি, সাধারণ দাতা হিসেবে চিনা দূতাবাস ২০০৫-০৬ সালে এই অনুদান দিয়েছে। জেপি নাড্ডার অভিযোগ, চিনের দূতাবাসের তরফে ২০০৫ সালে ৩ লক্ষ মার্কিন ডলার দেওয়া হয়েছিল রাজীব গান্ধি ফাউন্ডেশনকে। এটাই আসলে চিন ও গান্ধি পরিবারের গোপন সন্ধির প্রমাণ বলে অভিযোগ বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির।

Published by: Elina Datta
First published: June 26, 2020, 3:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर