বাবুলের গান বিতর্কে নির্বাচন কমিশনকে চ্যালেঞ্জ বিজেপির, পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ ওড়াল কমিশন

গতকালই বাবুলের গানের বেশ কয়েকটি শব্দ ও লাইন বদলে বিজেপিকে নির্দেশ দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। শুক্রবার পাল্টা হিসেবে বিজেপি জানাল প্রয়োজনে তারা দিল্লি যাবে।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Mar 29, 2019 07:45 PM IST
বাবুলের গান বিতর্কে নির্বাচন কমিশনকে চ্যালেঞ্জ বিজেপির, পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ ওড়াল কমিশন
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Mar 29, 2019 07:45 PM IST

#নয়াদিল্লি: কোনও শব্দ বা লাইন বদলানোর প্রশ্নই নেই। বাবুলের গান বিতর্কে নির্বাচন কমিশনকে এই ভাষাতেই চ্যালেঞ্জ বিজেপির। গতকালই বাবুলের গানের বেশ কয়েকটি শব্দ ও লাইন বদলে বিজেপিকে নির্দেশ দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। শুক্রবার পাল্টা হিসেবে বিজেপি জানাল প্রয়োজনে তারা দিল্লি যাবে। এদিন বিতর্কিত গান বাজিয়েই আসানসোলে প্রচার করলেন বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। অন্যদিকে, বাবুলের গান নিয়ে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ খারিজ করেছে কমিশন ৷ সিইওর দফতরের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করে রাজ্য বিজেপি ৷

একটা থিম সং। তা নিয়ে এবার বিজেপির সঙ্গে সংঘাত নির্বাচন কমিশনের। গায়ক সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র বিতর্কিত গানের কোনও কথা পরিবর্তন করা হবে না। বুধবার নির্বাচন কমিশনে গিয়ে একথা জানিয়ে এলেন রাজ্য বিজেপি নেতারা। তাঁদের দাবি, বাবুলের গানে এমন কোনও শব্দ নেই, যা কোনও ব্যক্তির স্বার্থকে আঘাত করে। বৃহস্পতিবার বাবুলের গানের বেশ কয়েকটি শব্দ বদলের নির্দেশ দিয়েছিল কমিশন। এদিন বিজেপির অভিযোগ, নির্বাচন কমিশন পক্ষপাতিত্ব করছে। গান মুক্তির জন্য দরকারে তাঁরা দিল্লি যাবেন নতুন করে আবেদনের জন্য। এই অভিযোগ উড়িয়ে কমিশনের জবাব, ঘটনা খতিয়ে দেখে এমসিএমসি কমিটি আইন মাফিক গানের কথা বদলের প্রস্তাব দেয় ৷

বিজেপি যখন কমিশনের বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধে, তখন বিতর্কিত গানেই আসানসোলে প্রচার বাবুলের। তাঁর দাবি, এই গানে কোনও বিধিভঙ্গ নেই। বাবুল বলেন,‘স্লোগানকে সুর দিয়ে গান করেছি ৷ এতে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের কিছু নেই ৷ তৃণমূলও চাইলে গান তৈরি করতে পারে ৷’

বিজেপির এই চ্যালেঞ্জের পরেও বাবুলের গান নিয়ে পিছিয়ে আসছে না নির্বাচন কমিশন। কয়েকদিন আগেই বাবুলের গান আপলোড করা হয়েছিল ট্যুইটারে। কমিশনের প্রশ্ন, এই গান যদি সরকারি ভাবে থিম সং না হয়, তা-হলে বাবুলের হ্যান্ডেল থেকে কে এই গান আপলোড করল? সবমিলিয়ে বাবুলের গানের সিডি-সহ এই সংক্রান্ত সব তথ্য এবার দিল্লির কাছে পাঠাচ্ছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন।

First published: 07:45:48 PM Mar 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर