চিতাবাঘের আক্রমণ থেকে দুই বন্ধুর প্রাণ রক্ষা জন্মদিনের কেকের দৌলতে !

প্রতীকী ছবি

জন্মদিনের কেকেই শেষে আয়ুবৃদ্ধি! দুই বন্ধু রক্ষা পেল চিতাবাঘের হাত থেকে ৷ অত্যাশ্চর্য এই ঘটনা মধ্যপ্রদেশের ৷

  • Share this:

    দিল্লি : জন্মদিনের কেকেই শেষে আয়ুবৃদ্ধি! দুই বন্ধু রক্ষা পেল চিতাবাঘের হাত থেকে ৷ অত্যাশ্চর্য এই ঘটনা মধ্যপ্রদেশের ৷

    পুলিশসূত্রে জানা গিয়েছে, মধ্যপ্রদেশের বুরহানপুরের বাসিন্দা ফিরোজ এবং সবির মানসুরি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার সময় বাইকে করে যাচ্ছিলেন ৷ সেদিন ছিল ফিরোজের ছেলের জন্মদিন ৷ সেই উপলক্ষে জন্মদিনের কেক নিয়ে অনুষ্ঠানস্থলে যাচ্ছিলেন দুই বন্ধু ৷ ফিরোজ নিজে বাইক চালাচ্ছিলেন ৷ পিছনে কেকের বড় বাক্স হাতে বসেছিলেন সাবির ৷

    দুই যুবক পুলিশকে জানিয়েছেন, গ্রামের পথে বাইক চালিয়ে যাওয়ার সময় পাশের আখখেত থেকে আচমকাই পথে উঠে আসে চিতাবাঘ ৷ বাইকের সামনেই শ্বাপদকে দেখে বাহনের গতি বাড়িয়ে দেন ফিরোজ ৷ কিন্তু গ্রামের কাদামাখা পথে বাইকের গতি বাড়াতে পারছিলেন না সেভাবে ৷

    প্রায় ৫০০ গজ পথ বাইকটিকে ধাওয়া করে আসে চিতাবাঘটি ৷ শেষে আর কোনও অস্ত্র না পেয়ে বিপদ বুঝে হাতে ধরা কেকের বাক্সটাই চিতাবাঘের উদ্দেশে ছুড়ে দেন সাবির ৷ তাঁর উপস্থিত বুদ্ধিতেই কাজ হয় ৷ আচমকা আঘাতে হতভম্ব হয়ে থমকে যায় চিতাবাঘ ৷ সেই সুযোগ বাইক চালিয়ে পালান দুই বন্ধু ৷

    তাঁরা পরে জানিয়েছেন, স্বভাবতই কেকের বাক্সর দিকে কোনও আগ্রহ ছিল না চিতাবাঘের ৷  বাক্স পড়েই ছিল পথের ধারে ৷ চিতাবাঘ ফের মিলিয়ে যায় আখখেতের অন্ধকারে ৷

    পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৪ থেকে ২০১৮-র মধ্যে দেশে চিতাবাঘের সংখ্যা বেড়েছে ৬০ শতাংশেরও বেশি ৷ এই শ্বাপদের সংখ্যা সবথেকে বেশি মধ্যপ্রদেশেই ৷

    দেশের বিভিন্ন অংশে প্রায়ই চিতাবাঘের হামলার ঘটনার খবর শোনা যায় ৷ পূর্ণবয়স্কদের তুলনায় শিশুরাই তাদের আক্রমণের লক্ষ্য হয় ৷ গত মাসে কাশ্মীরে চার বছরের এক শিশুকন্যাকে তাদের বাড়ির বাগান থেকে তুলে নিয়ে যায় চিতাবাঘ ৷ পরের দিন তার ছিন্নভিন্ন দেহ উদ্ধার হয় ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: