এক জেলায় নয়, দু’দুটো জেলায় এবার পুজোর ইউএসপি বৃহত্তম দুর্গা

File Photo

দেশপ্রিয় পার্কের অভিজ্ঞতার পরও শিক্ষা হয়নি। আবার বড় দুর্গা। এবার জেলায়।

  • Share this:

    #হরিণঘাটা: দেশপ্রিয় পার্কের অভিজ্ঞতার পরও শিক্ষা হয়নি। আবার বড় দুর্গা। এবার জেলায়। এক জেলায় নয় দু’দুটো জেলায় এবার পুজোর ইউএসপি বৃহত্তম দুর্গা। এক নদিয়ার হরিণঘাটায়। আরেকটা উলুবেড়িয়ায়। দুই ক্লাবেরই দাবি, এ বছর তাদের প্রতিমাই রাজ্যে সবচেয়ে বড়। ভক্তির বাড়াবাড়ি বা রেকর্ডের ভাঙ্গাভাঙ্গি। কারণ যাই হোক না কেন। বড়য় মজেছে দুগগা।

    সবচেয়ে বড় দুর্গা । বছর দুয়েক আগে, কলকাতার বুকে ছোট্ট এই ক্যাপশনেই বাজিমাত করেছিল দেশবন্ধু পার্ক। পুজো-প্রচারের সব আলো শুষে নিয়েছিল। এবছর একই কায়দায় পুজোয় হইচই ফেলতে চাইছে দুই জেলার দুই ক্লাব। এক নদিয়ার হরিণঘাটার জাগরণী সংঘ । আর দুই হাওড়া উলুবেড়িয়ায় বাগান্ডা সর্বজনীন।

    নদিয়ার ক্লাবের দাবি, ক্লাবের বয়স চৌষট্টি। তাই এবার প্রতিমাও চৌষট্টি ফিট। সঙ্গে বিশালাকার মণ্ডপ। প্রায় আট হাজার বাঁশ দিয়ে তৈরি করা হয়েছে প্যান্ডেল। ডাকের সাজে সাজবেন দুর্গা। প্রতিমার সাজ তৈরি হচ্ছে বর্ধমানের কাটোয়ার বনকাপাসীতে। বড় কালী তৈরির অভিজ্ঞতাকে মূলধন করেই দিন-রাত প্রথমবার বড় দুর্গার মৃন্মৃয়ী রূপ ফুটিয়ে তুলছেন শিল্পী ভক্ত পাল ।

    অন্য দিকে, উলুবেড়িয়ার বাগান্ডা সার্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটি দাবীটাও ফেলে দেওয়ার নয়। প্রায ৫৪ ফুটের প্রতিমা। সম্পূর্ন মাটির। পোষাক ও অলংকারও মাটির। গত দুইমাস ধরে প্রতিমা তৈরী দেখতেই প্রতিদিনের ভিড়। পুজোর দিন গুলোতে কি হবে কে জানে?

    First published: