corona virus btn
corona virus btn
Loading

চিদম্বরমের গ্রেফতারিতে রাজধানী উত্তাল রাজনৈতিক চাপানউতোরে

চিদম্বরমের গ্রেফতারিতে রাজধানী উত্তাল রাজনৈতিক চাপানউতোরে
দেশের অর্থনীতি ধুঁকছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে চলছে ছাঁটাই। প্রতিদিনের খরচ সামলাতেই সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস। প্রসঙ্গত, জুনে শেষ হওয়া ত্রৈমাসিকে জিডিপি-র হার ৫ শতাংশ ৷ ৬ বছরে সর্বনিম্ন ৷ এর আগের দিনও সাংবাদিকদের পাঁচ আঙুল দেখিয়ে জিডিপি ৫ শতাংশের প্রসঙ্গ তুলে কেন্দ্রকে খোঁচা দিয়েছিলেন চিদম্বরম ৷Photo Source: Twitter
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আইএনএক্স দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার চিদম্বরম। রাজধানী উত্তাল রাজনৈতিক চাপানউতোরে। কেন্দ্রের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর গ্রেফতারের পদ্ধতি হতাশজনক। মোদি সরকারকে আক্রমণ করে বৃহস্পতিবার প্রতিক্রিয়া দেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুতে সরব বলেই গ্রেফতার চিদম্বরম, অভিযোগ কংগ্রেসের। সরকারের পাল্টা জবাব, আইন আইনের পথে চলবে।

মোদি সরকারের জমানায় স্তব্ধ গণতন্ত্র। বৃহস্পতিবার দিঘা থেকে কলকাতায় ফেরার আগে চিদম্বরমের গ্রেফতারি নিয়ে সরাসরি কেন্দ্রকে তোপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। প্রশ্ন তুললেন, চিদম্বরমের গ্রেফতারির পদ্ধতি নিয়ে।বুধবার রাতে প্রতিরোধের চেষ্টা করেও, সিবিআইয়ের হাত থেকে পি চিদম্বরমের গ্রেফতারি রুখতে পারেনি কংগ্রেস। কেন্দ্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাড়ি সামনে যুব কংগ্রেস সমর্থকদের বিক্ষোভ ব্যর্থ হয়। চিদম্বরমের গ্রেফতারি রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকেই। নাম না করলেও কংগ্রেসের নিশানায় এখন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-ই। বৃহস্পতিবার আরও একধাপ এগিয়ে সরাসরি নিশানা করা হল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকেও।

আইএনএক্স দুনীর্তি মামলায় চিদম্বরমের গ্রেফতারিতে সরকারের কোনও হাত নেই। এমনকী, গ্রেফতারির পদ্ধতিতেও ভুল নেই। বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে পাল্টা দাবি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর জি কৃষ্ণা রেড্ডির। ষড়যন্ত্রের অভিযোগ পত্রপাঠ খারিজ করেছে শাসক দল বিজেপিও। রাজনৈতিক মহলের মতে, চিদম্বরমের গ্রেফতারিতে নিঃসন্দেহে শক্তি হারাল কংগ্রেস। বিশেষ করে কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী সভাপতি হিসেবে কাজ শুরু করে শুরুতেই ধাক্কা খেলেন সনিয়া গান্ধিও। ভরসা একটাই ডিএমকে, তৃণমূলের মতো বিরোধীরা এই সময়ে কংগ্রসের হাত শক্ত করেছে।

আরও দেখুন-
First published: August 23, 2019, 10:44 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर