corona virus btn
corona virus btn
Loading

অতিরিক্ত কাউন্টার খোলার পাশাপাশি অতিরিক্ত সময়ের জন্য খোলা থাকবে ব্যাঙ্ক

অতিরিক্ত কাউন্টার খোলার পাশাপাশি অতিরিক্ত সময়ের জন্য খোলা থাকবে ব্যাঙ্ক

সাধারণ মানুষকে সাহায্য করানোর জন্য নোট বদলের জন্য অতিরিক্ত কাউন্টার খোলা হবে ব্যাঙ্কে ৷ এমনকী অতিরিক্ত সময় পর্যন্ত খোলা থাকবে ব্যাঙ্ক ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রী রাতারাতি ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের ঘোষণার পর থেকেই গোটা দেশ তোলপাড় ৷ তার উপর বন্ধ থাকবে ব্যাঙ্ক ও এটিএম ৷ কালো টাকা উদ্ধারে কার্যত অর্থনৈতিক অবরোধ ঘোষণা মোদি প্রশাসনের। এর জেরে অসুবিধায় পড়েছেন অসংখ্য সাধারণ মানুষ। ছোট ব্যবসায়ী, চাকরিজীবিদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। দেশজুড়ে মানুষের মধ্যে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তবে সাধারণ মানুষকে আতঙ্কিত হতে মানা করে প্রধানমন্ত্রী মোদি জানিয়েছেন, “আপনার টাকা আপনারই থাকবে। এ ব্যাপারে আতঙ্কিত হবেন না।”

বাতিল হলেও ব্যাঙ্কে গিয়ে তা বদলে নেওয়া যাবে। সাধারণ মানুষকে সাহায্য করানোর জন্য নোট বদলের জন্য অতিরিক্ত কাউন্টার খোলা হবে ব্যাঙ্কে ৷ এমনকী অতিরিক্ত সময় পর্যন্ত খোলা থাকবে ব্যাঙ্ক ৷

ব্যাঙ্ক খুলতেই মানুষের হিড়িক পড়তে চলেছে ৷ এমন আশঙ্কা করেই RBI ও সরকার মুম্বই ও নয়াদিল্লিতে কন্ট্রোল রুম খুলেছে ৷ বুধবার সমস্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ রাখা হয়েছে ৷ ৫০০ টাকার কমের নোটগুলি গুছিয়ে নিত্ই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ৷ ১০ নভেম্বর থেকে মানুষ নোট বদল করতে পারবেন ৷

ডিসেম্বর ৩০ তারিখ পর্যন্ত যে কোনও অঙ্কের টাকা তারা ব্যাঙ্কে জমা দিতে পারে ৷ জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও ঊর্ধ্বসীমা নেই ৷ কিন্ত নোট বদলাতে গেলে চার হাজার টাকার ঊর্ধ্বসীমা রয়েছে ৷ ব্যাঙ্কের স্পেশ্যাল কাউন্টার ও পোস্ট অফিসে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত নোট বদল করা যাবে ৷

তবে কোনও ট্রানজ়্যাকশনের ক্ষেত্রে তাদের সন্দেহ হলে ব্যাঙ্ক সেটি Financial Intelligence Unit ও আয়কর কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে ৷

এদিন RBI-এর গর্ভনার উরজিত পটেল জানিয়েছেন,‘‘ সাধারণ মানুষের কাছে নতুন নোট যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পৌঁছে দেওয়ার আমরা চেষ্টা করছি ৷ ৫০০ ও ১০০০ টাকার মতো বড় অঙ্কের নোটই সাধারণত জাল করা হয়ে থাকে৷ এবং গত কয়েক বছরে জাল কারবারিদের রমরমাও বেড়েছে ৷ প্রচুর জাল টাকা ছড়িয়ে পড়েছে৷ তাতে রাশ টানার পাশাপাশি সন্ত্রাসে মদত জোগাতে যে অর্থের জোগান দেওয়া হয় তা বন্ধ করাও কেন্দ্রের অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য৷” তিনি আরও জানান নভেম্বরের ১০ তারিখ থেকে বাজারে আসতে চলেছে আরও নতুন নোট ৷ এই মুহূর্তে বাজারে ১৬.৫ বিলিয়ন ৫০০ টাকার নোট ও ৬.৭ বিলিয়ন ১০০০ টাকার নোট বাজারে রয়েছে ৷

নতুন নির্দেশিকার অনুযায়ী আপাতত দিনে এটিএম থেকে ২০০০ টাকা তোলা যাবে ও ব্যাঙ্ক থেকে ১০,০০০ টাকা ৷ সপ্তাহে মোট ২০,০০০ টাকা তোলা যাবে ব্যাঙ্ক থেকে ৷

First published: November 9, 2016, 4:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर