কোনও প্ররোচনা ছাড়াই যাদবপুরে হেনস্থার শিকার বাবুল সুপ্রিয়রা: তথাগত রায়

কোনও প্ররোচনা ছাড়াই যাদবপুরে হেনস্থার শিকার বাবুল সুপ্রিয়রা: তথাগত রায়
  • Share this:

#কলকাতা: বৃহস্পতিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নিগৃহীত হন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তাঁর দাবি, কোনও প্ররোচনা ছাড়াই হামলা চালিয়েছে পড়ুয়ারা। ছাত্রছাত্রীদের পাল্টা দাবি, উস্কানি ছড়িয়েছেন বাবুলই। ছাত্রীদের গায়ে হাত তুলেছেন।

যাদবপুর কাণ্ডে মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায় ট্যুইট করে জানান, ‘ যেখানে ২০ বছর ধরে শিক্ষকতা করেছি ৷ সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর হেনস্থা হওয়ার ঘটনায় আমি লজ্জিত ৷ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা-বিভাগের ছাত্র-ছাত্ররাই এই কাণ্ডটা ঘটিয়েছেন ৷ বেশিরভাগ ছাত্রছাত্রীরাই আসলে বেকার ৷ চাকরি পাওয়ার আশাও নেই ৷ পশ্চিমবঙ্গে চাকরি নেই ৷ কিন্তু তেলেভাজা আছে ৷ এই ঘটনা তারই একটা প্রতিফলন ৷ আমি বিশ্বাস করি ফ্যাসিবাদ ও উগ্র বামপন্থার মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই ৷ কোনও প্ররোচনা ছাড়াই যাদবপুরে মাওবাদীদের হাতে হেনস্থা হয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়রা ৷   ’

Tathagata Roy

বৃহস্পতিবার বাবুল সুপ্রিয় যাদবপুর ক্যাম্পাসে ঢুকতেই বিক্ষোভের মুখে পড়েন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে ঘিরে গো-ব্যাক স্লোগান ওঠে। সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা, কালবুর্গি-রোহিত ভেমুলা-র খুন, এনআরসি সহ বিজেপির বিভিন্ন নীতির বিরুদ্ধে স্লোগান দিচ্ছিলেন ছাত্রছাত্রীরা। ধাক্কাধাক্কিতে মাটিতে পড়ে যান বাবুল। খুলে যায় তাঁর চশমা।

ট্যুইটে বাবুল দাবি করেছেন, কোনও প্ররোচনা ছাড়াই তাঁর উপর হামলা হয়েছে। যাদবপুরের ছাত্রছাত্রীরা কিন্তু আঙুল তুলছেন বাবুলের দিকেই। ভিডিও ফুটেজেও দেখা যাচ্ছে এক ছাত্রের গেঞ্জি ধরে টানছেন বাবুল।

গোলমালের খবর পেয়ে ছুটে আসেন উপাচার্য। কিন্তু তাঁকেও রেয়াত করেননি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।এবিভিপির নবীন বরণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসেন বাবুল সুপ্রিয়। অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ পত্রে দেখা যাচ্ছে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নয়, সংগীতশিল্পী হিসাবেই বাবুল সুপ্রিয়র উপস্থিত থাকার কথা। তার উপর বাবুলের আসার ব্যাপারে নাকি অন্ধকারেই ছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

রাজ্যপাল এসে উদ্ধার করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে। তারপর এবিভিপি কর্মীরা গেট ভেঙে আর্টস ইউনিয়ন রুমে ঢুকে ভাঙচুর চালায়, আগুন লাগায় বলে অভিযোগ। সে ব্যাপারে অবশ্য স্পিকটি নট বাবুল সুপ্রিয়।

First published: September 20, 2019, 6:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर