Home /News /national /
মহিলার সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু

মহিলার সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু

পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু

পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু

মহিলার সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় পুরুষাঙ্গই কেটে ফেললেন ধর্মগুরু

  • Share this:

    #রাজস্থান: নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে চুড়ান্ত পদক্ষেপ নিলেন ধর্মগুরু বাবা সন্তোষদাস ৷ অবৈধ যৌন সম্পর্কে লিপ্ত থাকার অভিযোগ থেকে নিজেকে মুক্ত করতে নিজের পুরুষাঙ্গই কেটে ফেলেছেন রাজস্থানের চুরু জেলার বাসিন্দা এই জনপ্রিয় ধর্মগুরু ৷

    রাজস্থানের চুরু জেলার তারানগরে নিজেরই তৈরি করা আশ্রমে থাকেন বাবা সন্তোষদাস ৷ আশ্রমের নাম হরিদাস ৷ সেখানে বাবার গুণমুগ্ধ ভক্তদের নিত্য আনাগোণা ৷ আসতেন বহু মহিলা ভক্তও ৷ সন্ধের পর মহিলা ভক্তদের যাতায়াত নিয়ে সন্দেহ জাগে এক ব্যক্তির মনে ৷

    জানা গিয়েছে, জনপ্রিয় এই ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে যৌন সংসর্গের অভিযোগ এনেছেন পবন সিং নামে এক ব্যক্তি ৷ বলা হয়, আশ্রমে আসা মহিলাদের সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন বাবা সন্তোষদাস ৷

    নিজের বিরুদ্ধে এরকম ঘৃণ্য অভিযোগ ওঠায় চুড়ান্ত অপমানিত বোধ করেন বাবাজী ৷ রাগে-অপমানে এমন পদক্ষেপ নেন যা কেউ ভাবতেও পারেনি ৷ নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে নিজেই ছুরি দিয়ে নিজের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেন ৷

    এমন ঘটনায় হতচকিয়ে যায় তাঁর শিষ্যরা ৷ রক্তে ভরে যায় বাবার গোটা শরীর ৷ রক্তপাত বন্ধ না হওয়ায় বাবা সন্তোষদাসকে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় হাসপাতালে ৷ সেখানে রোগীর এমন অবস্থা দেখে তৎক্ষণাৎ জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয় ৷ অধিক রক্তপাত হওয়ায় তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটে ৷

    First published:

    Tags: Cuts off genitals, Sexual harrasment

    পরবর্তী খবর