corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনার ওষুধ তৈরির দাবি, আয়ুর্বেদ চিকিৎসককে ১০হাজার টাকা জরিমানা সুপ্রিম কোর্টের

করোনার ওষুধ তৈরির দাবি, আয়ুর্বেদ চিকিৎসককে ১০হাজার টাকা জরিমানা সুপ্রিম কোর্টের

এই ধরণের অর্থহীন এবং যুক্তিহীন দাবিতে জনস্বার্থ মামলা এবং তাও আবার সর্বোচ্চ আদালতে করে ওম প্রকাশ আদতে কোর্টের সময় নষ্ট করেছেন, জানান বিচারপতি৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনার আয়ুর্বেদিক ওষুধ বানিয়ে ফেলার দাবি করেছিলেন চিকিৎসক৷ এবার তার সেই দাবি নস্যাৎ করল সুপ্রিম কোর্ট সঙ্গে করা হল মোটা টাকার জরিমানাও ৷ হরিয়ানার ওম প্রকাশ বৈদ্য জ্ঞানতারা দাবি করেছিলেন যে তাঁর তৈরি করোনার প্রতিশেধক ব্যবহার করতে পারেন চিকিৎসকরা ৷ এমনকী, করোনা চিকিৎসায় বিভিন্ন হাসপাতালেও এই ওষুধ ব্যবহার করলে এতে উপকার মিলবে বলেই দাবি ছিল তাঁর৷

ওম প্রকাশ বৈদ্য জ্ঞানতারা আয়ুর্বেদ মেডিসিন এবং সার্জারিতে (Bachelor of Ayurvedic Medicine and Surgery-BAMS) স্নাতক৷ তাঁর তৈরি এই ওষুধ দেশজুড়ে ব্যবহারের জন্য যাতে নির্দেশ দেওয়া হয় তারই অনুরোধ করে তিনি৷ এই নিয়ে একটি জনস্বার্থ মামলা করে কোর্টের কাছেও সেই আর্জি রাখেন ওম প্রকাশ৷ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের সচিবকে এই মর্মে বার্তা দেওয়ার জন্য কোর্টের কাছে আর্জি রেখেই এই বিশেষ মামলা করেন তিনি৷

কী ছিল ওম প্রকাশের দাবি? সম্পূর্ণ দেশি উপায়ে তৈরি তাঁর এই ওষুধে সেরে উঠবে করোনা রোগী৷ এই আয়ুর্বেদ ওষুধে মিলবে করোনা থেকে মুক্তি ৷ তাঁর এই দাবি শুনে খুবই বিরক্ত হন বিচারপতি সঞ্জয় কে কৌল৷ এই ধরণের অর্থহীন এবং যুক্তিহীন দাবিতে জনস্বার্থ মামলা এবং তাও আবার সর্বোচ্চ আদালতে করে ওম প্রকাশ যা আদতে কোর্টের সময় নষ্ট করেছেন, সেটাই জানা তিনি৷ এমন ভাবে কোর্টের সময় নষ্ট করার অধিকার নেই বলেই মত বিচারপতির৷ বিচারপতিদের বেঞ্চে ছিলেন অজয় রাস্তোগি এবং অনিরুদ্ধ বসুও ৷ তাঁদের মতে, এই মামলা দায়ের করে আদতে ওম প্রকাশ জনসমক্ষে  খ্যাতিই অর্জন করতে চেয়েছেন৷ এই ধরণের মামলা দায়ের করা বন্ধ হোক৷ কারণ অনেকেই ভাবছেন যে কোনও না কোনও উপায়ে তারা করোনার ওষুধ তৈরি করে ফেলেছেন৷ যা অযৌক্তিক৷ জানিয়েছেন বিচারপতিরা৷

এতে কোর্টের সময় নষ্ট হচ্ছে জানিয়েছে শীর্ষ আদালত৷ এরপরই ওম প্রকাশের করা রিট পিটিশন বাতিল করে আদালত এবং ১০হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়৷

Published by: Pooja Basu
First published: August 21, 2020, 11:09 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर