‘অযোধ্যা’, ১৩৪ বছরের পুরনো বিতর্ক, মধ্যস্থতার চেষ্টা করেছিলেন নরসিংহ রাও-চন্দ্রশেখরও

চন্দ্রশেখর ও নরসিংহ রাও প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় বারবার মধ্যস্থতার চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে ৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 16, 2019 03:22 PM IST
‘অযোধ্যা’, ১৩৪ বছরের পুরনো বিতর্ক, মধ্যস্থতার চেষ্টা করেছিলেন নরসিংহ রাও-চন্দ্রশেখরও
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 16, 2019 03:22 PM IST

#নয়াদিল্লি: ১৯৯২ নয় অযোধ্যার রামমন্দির-বাবরি মসজিদ জমি নিয়ে বিতর্কের সূত্রপাত তার বহু আগেই ৷ ১৩৪ বছরের পুরনো বিতর্ক ৷ এর আগে বেশ কয়েকবার অযোধ্যা মামলার নিষ্পত্তিতে মধ্যস্থতার চেষ্টা হয়েছিল। যদিও তা কোনও বারই সাফল্যের মুখ দেখেনি। কখনও এ পক্ষ বেঁকে বসেছে তো কখনও ওপক্ষ। চন্দ্রশেখর ও নরসিংহ রাও প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় বারবার মধ্যস্থতার চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে ৷

তখনও বাবরি মসজিদ ধ্বংস হয়নি। বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও সারা ভারত মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের মধ্যে মধ্যস্থতার কথাবার্তা চলেছিল বিস্তর। কিন্তু কোনও সমাধানসূত্র মেলেনি। নির্মোহী আখড়া, উত্তরপ্রদেশের সুন্নি সেন্ট্রাল ওয়াকফ বোর্ড এবং রামলালা বিরাজমনের মধ্যে বিতর্কিত জমি ভাগ করে দেওয়ার প্রস্তাব দেয় এলাহাবাদ হাইকোর্ট। কিন্তু সেবারও বাধ সাধে হিন্দু মামলাকারীরা।

এবার মাঠে নামেন খোদ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি। তিনি নিজেই মধ্যস্থতার দায়িত্ব নিতে চেয়েছিলেন। সেবারও ভেস্তে যায় মধ্যস্থতার চেষ্টা। এছাড়াও অযোধ্যা মামলায় শীর্ষ আদালতের উদ্যোগে মধ্যস্থতার চেষ্টা করেন এফ এম ইব্রাহিম খলিফুল্লা, শ্রী শ্রী রবিশঙ্কর ও শ্রীরাম পঞ্চু।

First published: 03:16:26 PM Oct 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर