• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ঐতিহাসিক দিন! দশ বছরের প্রচেষ্টা সফল, ১০ হাজার ফুট উঁচুতে নির্মিত হল পৃথিবীর দীর্ঘতম অটল টানেল

ঐতিহাসিক দিন! দশ বছরের প্রচেষ্টা সফল, ১০ হাজার ফুট উঁচুতে নির্মিত হল পৃথিবীর দীর্ঘতম অটল টানেল

অটল টানেল।

অটল টানেল।

এই প্রকল্পের বাস্তবায়নে খরচ হয়েছে প্রায় ৩,২০০ কোটি টাকা।

  • Share this:

    #মানালি: নির্মাণের ইতিহাসে ভারতের আরও এক বড় স্বপ্ন বাস্তবায়নের মুখে। এবার ১০,০০০ ফুট উঁচুতে গড়ে উঠছে বিশ্বের দীর্ঘতম হাইওয়ে টানেল। মানালি থেকে লে'কে সংযুক্ত করবে এই টানেল। স্বপ্নের এই রোহতাং টানেল প্রকল্পের নামকরণ করা হয়েছে দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ির নামে। সব ঠিক থাকলে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহেই এই অটল টানেলের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশের মতে, এই টানেল পরিবহণের খরচ কমিয়ে এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে চলেছে।

    এই প্রকল্পের বাস্তবায়নে খরচ হয়েছে প্রায় ৩,২০০ কোটি টাকা। অটল টানেল প্রজেক্টের চিফ ইঞ্জিনিয়ার কে পি পুরুষোত্থামন জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে কথা ছিল ছয় বছরের কম সময়েই এই প্রকল্পটি নির্মাণ করা হবে। তবে সময় লেগে গেল ১০ বছর। এই টানেল প্রায় ৮.৮ কিলোমিটার দীর্ঘ। যা বিশ্বের অন্যতম দীর্ঘ হাইওয়ে টানেলের শিরোপা পেতে চলেছে।

    রোহতাং পাসের কাছে প্রায় ১০,১৭১ ফুট উচ্চতায় তৈরি হয়েছে এই টানেল। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, এই সুড়ঙ্গ পথ তথা রোড টানেল শীঘ্রই খুলে দেওয়া হবে জনসাধারণের জন্য। একবার এই টানেলের দ্বার উন্মুক্ত হলে মানালি ও লাহুল-স্পিতির প্রশাসনিক কেন্দ্র কেলংয়ের মধ্যে প্রায় ৪৫ কিলোমিটার দূরত্ব হ্রাস পাবে। যাতায়াতের দূরত্বের পাশাপাশি কমবে পরিবহনের কোটি কোটি টাকা খরচও।

    দিন কয়েক আগে BRO আধিকারিকরা জানিয়েছিলেন, এই টানেল তৈরির কাজ খুবই গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে রয়েছে। কারণ বর্তমানে টানেলের ইলেক্ট্রো-মেকানিক ফিটিংস প্রতিস্থাপন, ইনটেলিজেন্ট ট্র্যাফিক কন্ট্রোল সিস্টেম, ভেন্টিলেশন সিস্টেম, রাস্তার কাজ, আলোর কাজ সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নির্মাণ কাজ চলছে।

    এই অটল টানেল ছাড়াও আরও একটি প্রকল্প বাস্তবায়নের পথে রয়েছে। নতুন এই প্রকল্পের অধীনে মূলত রোহতাং টানেলের উত্তর অংশে চন্দ্রা নদীর উপর একটি ১০০ মিটার দীর্ঘ একটি স্টিল সুপার স্ট্রাকচার ব্রিজ তৈরি করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি মাস কয়েক আগে শোনা গেছিল, চিন সংলগ্ন সীমান্তবর্তী অঞ্চলে হেলিপ্যাড তৈরির কাজের কথা ITBP কে সাহায্য করছে হিমাচল প্রদেশের সরকার। প্রশাসনিক মহলের একাংশের বক্তব্য, যদি এই কাজ সম্পন্ন হয় তাহলে সীমান্ত এলাকায় তা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে।

    Published by:Arka Deb
    First published: