• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • নীরব মোদির বিরুদ্ধে নোটিস জারি ইন্টারপোলের, ব্যাঙ্ক জালিয়াতিতে ৮ জনকে সাসপেন্ড করল পিএনবি

নীরব মোদির বিরুদ্ধে নোটিস জারি ইন্টারপোলের, ব্যাঙ্ক জালিয়াতিতে ৮ জনকে সাসপেন্ড করল পিএনবি

File photo of Nirav Modi.

File photo of Nirav Modi.

ব্যাঙ্ক জালিয়াতিতে অভিযুক্ত হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদি-সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে নোটিস জারি করল ইন্টারপোল।

  • Share this:

    #মুম্বই: ব্যাঙ্ক জালিয়াতিতে অভিযুক্ত হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদি-সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে নোটিস জারি করল ইন্টারপোল। ডিফিউসন নোটিস জারি করে নীরবের খোঁজ থাকলে জানাতে আবেদন। হীরে ব্যবসায়ী নীরব মোদির বিভিন্ন সংস্থায় শুক্রবার তল্লাশি চালায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। মহারাষ্ট্রের কালাঘোটায় হীরের বুটিকেও হানা দেয় ইডি।

    অন্যদিকে নীরব মোদি কেলেঙ্কারির জেরে ফের ৮ জনকে সাসপেন্ড করল পিএনবি ৷ আগেই ১০ জনকে সাসপেন্ড করা হয় ৷ নিয়মবহির্ভূতভাবে ঋণ দেওয়ার অভিযোগ তাদের সাসপেন্ড করা হয়েছে ৷ এনিয়ে ১৮ জনকে সাসপেন্ড করা হল ৷

    জানুয়ারি মাসে ব্যাঙ্ক প্রতারণার অভিযোগ পায় সিবিআই। ৩১ জানুয়ারি দিল্লি, সুরাত এবং জয়পুরে নীরব মোদির সংস্থার একাধিক দফতরে হানা দেন তদন্তকারীরা।

    বৃহস্পতিবারও মুম্বই এবং দিল্লিতে ফায়ারস্টার ডায়মন্ডসের বিভিন্ন শোরুমে তল্লাশি চালিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডায়রেক্টরেট ও সিবিআই। তবে পিএনবি কেলেঙ্কারির পূর্ণাঙ্গ তদন্ত শুরুর আগেই দেশ ছেড়েছেন নীরব মোদি। খোঁজ নেই তাঁর স্ত্রী অমি, ভাই নিশল আর মামা মেহুল চকসিরও। নীরব মোদির স্ত্রী অমির বাসভবন সিল সিল করে দিয়েছে সিবিআই। ব্যাঙ্ক জালিয়াতির তদন্তে এদিন পঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাঙ্কের শীর্ষকর্তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই।

    গত ২৩ জানুয়ারি সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকনমিক ফোরামের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন নীরব মোদি। শিল্পপতিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটি ছবিতে দেখা গিয়েছে ওই ধনকুবেরকে। এনিয়ে মোদি সরকারকে বিঁধতে ছাড়েনি বিরোধীরা। সরকারপক্ষের পালটা যুক্তি, নিজে থেকেই সুইজারল্যান্ডে গিয়েছিলেন নীরব মোদি। প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী তিনি ছিলেন না।

    রাজনীতি তো বটেই, নীরব মোদিকে ঘিরেই দিনভর সরব ছিল সোশ্যাল মিডিয়া। অনেকের মতে, ন’হাজার কোটি টাকার দেনা নিয়ে দেশ ছেড়েছিলেন বিজয় মালিয়া। আর নীরব মোদি ভারত ছেড়েছেন সাড়ে এগারো হাজার কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগ মাথায় নিয়ে।

    First published: