Puri Jagannath Temple Closed: জগন্নাথধামেও করোনা-ত্রাস, বন্ধ হয়ে গেল পুরীর মন্দির! রথযাত্রা কি হবে?

Puri Jagannath Temple Closed: জগন্নাথধামেও করোনা-ত্রাস, বন্ধ হয়ে গেল পুরীর মন্দির! রথযাত্রা কি হবে?

বন্ধ হয়ে গেল মন্দির

আমজনতার জন্য মন্দির বন্ধ থাকলেও নিয়মিত পূজার্চনা হবে বলে জানানো হয়েছে। মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন সেবায়েত ও কমিটির সদস্যরাও।

  • Share this:

    #ওডিশা: দেশে ভয়াবহ আকার ধারন করেছে করোনার দ্বিতীয় সংক্রমণ (Corona Second Wave)। প্রতিদিন তিন লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত ও গড়ে দু'হাজার মানুষের মৃত্যু হচ্ছে ভারতে। এই পরিস্থিতিতে পুরীর শ্রী জগন্নাথ মন্দির (Puri’s Jagannath Temple) বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল মন্দির কর্তৃপক্ষ (SJTA)। আপাতত ১৫ মে পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য বন্ধ থাকবে জগন্নাথ মন্দির। শনিবারই এই মর্মে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয়েছে মন্দির কর্তপক্ষের তরফে। তবে আমজনতার জন্য মন্দির বন্ধ থাকলেও নিয়মিত পূজার্চনা হবে বলে জানানো হয়েছে। মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন সেবায়েত ও কমিটির সদস্যরাও।

    করোনা পরিস্থিতিতে এখনও দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা হয়নি। দিনকয়েক আগেই জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আর্জি জানিয়েছিলেন, 'সকলে সাবধানে থাকুন। লকডাউন করতে বাধ্য করবেন না। লকডাউন আমাদের শেষ সিদ্ধান্ত।' কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর আর্জিতেও এখনও কাজ হচ্ছে না। বহু ধর্মীয়স্থানে মাস্ক, শারীরিক দূরত্ববিধি ছাড়াই ভিড় জমাচ্ছেন মানুষ। এই পরিস্থিতিতে পুরীর জগন্নাথ মন্দির সাধারণের জন্য বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

    প্রসঙ্গত, আগামী ১৫ মে অক্ষয় তৃতীয়ার দিন থেকে পুরীর রথযাত্রার প্রস্তুতি শুরু হওয়ার কথা। আর আগামী ১২ জুলাই রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। মন্দির কর্তৃপক্ষের একাংশের দাবি, দেশের যা পরিস্থিতি, তাতে ভক্ত সমাহারে রথযাত্রা করা এবারও সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে গত বছরের মতো এবারও ভক্ত সমাগম ছাড়াই রথযাত্রার ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।

    শনিবারই পুরীর জেলাশাসক, পুলিশ সুপার, সেবায়েতদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন পুরীর মন্দির কমিটির প্রধান কৃষাণ কুমার। সেই বৈঠকেই চন্দনযাত্রা, স্নানযাত্রা ও রথযাত্রার কথায় মাথায় রেখে বাড়তি সতর্কতার উপর জোর দেওয়া হয়। গত বছর মন্দিরের সেবায়েতদের অনেকেই আক্রান্ত হয়েছিলেন করোনায়। এবার সেবায়েতেদর মধ্যে সংক্রমণ রোখার বিষয়টিকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। মন্দির কমিটির প্রশাসক জিতেন্দ্র সাউ বলেন, ‘সেবায়েত ও তাঁদের পরিজনদের নিয়মিত করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। পুজো ও রথ নির্মাণের সঙ্গে যুক্ত পূজারী, কর্মীদেরও দ্রুত টিকাকরণের ব্যবস্থা করা হবে।’ এছাড়াও নীলাদ্রি ভক্ত নিবাসকে কোভিড কেয়ার সেন্টার করে গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্দির কমিটি।

    Published by:Suman Biswas
    First published:
    0

    লেটেস্ট খবর