• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • দেশ
  • »
  • ANSAR GHAZWAT UL HIND CHIEF IMTIYAZ SHAH AMONG 2 TERRORISTS KILLED IN TRAL ENCOUNTER IN JAMMU AND KASHMIR RC

Encounter at Jammu-Kashmir: ত্রাল এনকাউন্টারে সেনার সাফল্য, আল কায়দার ভারতীয় শাখার প্রধান-সহ ৫ জঙ্গি খতম!

Encounter at Jammu-Kashmir: ত্রাল এনকাউন্টারে সেনার সাফল্য, আল কায়দার ভারতীয় শাখার প্রধান-সহ ৫ জঙ্গি খতম!

ত্রাল এনকাউন্টারে সেনার সাফল্য, আল কায়দার ভারতীয় শাখার প্রধান-সহ ৫ জঙ্গি খতম!

আনসার গাজওয়াত-উল-হিন্দের মাথা ইমতিয়াজ শাহ দীর্ঘদিন ধরেই উপত্যকায় সন্ত্রাসবাদী হামলার ছক কষছিল। তাকে মদত দিচ্ছিল আল-কায়দা। এই জঙ্গিগোষ্ঠীর হয়েই শ্যুটারের কাজ করত সে।

  • Share this:

    #শ্রীনগর: ভারতীয় সেনার জন্য দারুণ গর্বের দিন। শুক্রবার জম্মু-কাশ্মীরের ত্রাল এনকাউন্টারে নিহত হয়েছে আনসার গাজওয়াত-উল-হিন্দের মাথা ইমতিয়াজ শাহ ওরফে খালিদ-সহ আরও এক জঙ্গি। ভারতীয় সেনার কাছে এটা বড়সড় সাফল্য বলেই মনে করা হচ্ছে। কারণ, আনসার গাজওয়াত-উল-হিন্দের মাথা ইমতিয়াজ শাহ দীর্ঘদিন ধরেই উপত্যকায় সন্ত্রাসবাদী হামলার ছক কষছিল। তাকে মদত দিচ্ছিল আল-কায়দা। এই জঙ্গিগোষ্ঠীর হয়েই শ্যুটারের কাজ করত সে। গতকালই উপত্যকার পুলিশ ট্যুইট করেছিল যে, সোপিয়ান এনকাউন্টারে শাহকে আটক করা গিয়েছে।

    ট্যুইটারে কাশ্মীর জোন পুলিশ জানিয়েছিল, সোপিয়ান এনকাউন্টারের পর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছিল সেনা। ত্রাল এনকাউন্টারে AGuH প্রধান জঙ্গি ইমতিয়াজ শাহকে খতম করা গিয়েছে। কাশ্মীরের আইজিপি পুলিশ ও সেনাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। তল্লাশি এখনও চালানো হচ্ছে। ২০১৭ সালে তৈরি আল কায়দার সঙ্গী গোষ্ঠী AGuH অর্থাৎ আনসার গাজওয়াত-উল-হিন্দের মাথা হয়ে কাজ করছিল শাহ।

    আল কায়দার ভারতীয় শাখার নাম দেওয়া হয়েছিল আনসার গাজওয়াত-উল-হিন্দ। এটি তৈরি করেছিল জাকির মুসা। ২০১৯ সালে ভারতীয় সেনার এনকাউন্টারে মারা গিয়েছিল জাকির মুসা। তার পর থেকেই এর দায়িত্ব সামলাচ্ছিল ইমতিয়াজ শাহ। সোপিয়ানে গত বুধবার থেকে লাগাতার ভারতীয় সেনার এনকাউন্টারে মোট ৫ জঙ্গিকে খতম করতে পারা গিয়েছে। বুধবারই পুলিশ জানিয়েছিল যে, সোপিয়ানে একটি মসজিদের ভিতর ইমতিয়াজ শাহ ও আরও তিন জঙ্গী ঘাঁটি গেরে বসেছিল। শুক্রবারের এনকাউন্টারে তাদের প্রত্যেককেই শেষ করে সেনা।

    স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে জম্মু-কাশ্মীর পুিলশ ও ভারতীয় সেনা যৌথ উদ্যোগে তল্লাশি শুরু করেছিল। তার পরেই শুক্রবার এই সাফল্য পায় ভারতীয় সেনা।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: