• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • পথ কুকুরদের বাঁচাতে গিয়ে নৃশংস আক্রমণের শিকার, মুখ-নাক ফাটল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যদের

পথ কুকুরদের বাঁচাতে গিয়ে নৃশংস আক্রমণের শিকার, মুখ-নাক ফাটল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যদের

পথ কুকুরদের উদ্ধারে গিয়ে স্থানীয়দের নৃশংস আক্রমণের শিকার হলেন পশুপ্রেমী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা।

পথ কুকুরদের উদ্ধারে গিয়ে স্থানীয়দের নৃশংস আক্রমণের শিকার হলেন পশুপ্রেমী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা।

পথ কুকুরদের উদ্ধারে গিয়ে স্থানীয়দের নৃশংস আক্রমণের শিকার হলেন পশুপ্রেমী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: পথ কুকুরদের উদ্ধারে গিয়ে স্থানীয়দের নৃশংস আক্রমণের শিকার পশুপ্রেমী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা। মুখ-নাক ফাটিয়ে দেওয়া হয়েছে তাঁদের-এমনই অভিযোগ। এরপর পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করতে গিয়েও হেনস্থার শিকার হন তাঁরা। পুলিশের তরফে আবার পাল্টা দাবি করা হয়, পশুপ্রেমীরা রাতে যখন এলাকায় ঘুরছিলেন তখন তাঁদের গাড়িতে কয়েকজনের আঘাত লাগে। যদিও দিল্লি মহিলা কমিশনের হস্তক্ষেপের পর অভিযোগ নেয় পুলিশ।

    জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে আয়েশা ক্রিস্টিনা-সহ বেশ কয়েকজন রানি বাগের ঋষি নগরে যান পথকুকুরদের ওষুধ, ইনজেকশন দিতে। অভিযোগ,  সেখানেই তাঁদের আক্রমণ করা হয়। এরপর রক্তাক্ত অবস্থায় আয়েশা একটি ফেসবুক পোস্ট করে গোটা ঘটনার কথা জানান। এরপরেই নিন্দার ঝড় উঠেছে সব মহলে। ভিডিওটি এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। সেই ভিডিওটি ট্যুইট করছেন দিল্লি মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিওয়াল। তিনি দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

    স্বাতী মালিওয়াল ট্যুইটে লেখেন, “এটা খুবই লজ্জাজনক ঘটনা। যাঁরা পশুদের জন্য কাজ করেন, তাঁদের এভাবে মারধর করা হল। দিল্লি মহিলা কমিশন প্রতি মুহূর্তে ওই তরুণীর সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। দোষীদের বিরুদ্ধে করা ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

    আয়েশা জানিয়েছে, 'আমরা যখন কুকুরদের ধরছিলাম, তখন আমাদের উপর আক্রমণ করা হয়। আমাদের সঙ্গে প্রথমে দুর্ব্যবহার করা হয়। আমরা তার প্রতিবাদ করতেই আমাদের এভাবে আক্রমণ করা হয়।' শুধু আয়েশাকেই নয়, সংগঠনের অন্যান্য সদস্যদেরও আক্রমণ করে স্থানীয়রা। এমনকি তাঁদের গাড়িও ভেঙে দেওয়া হয়। তাঁদের করা ভিডিওতে সেই ছবিও স্পষ্ট দেখা গিয়েছে।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: