Corona Horror in Andhra: 'দয়া করে মেয়েটাকে বাঁচান', হাসপাতালের গেটে নিথর শিশুর দেহ নিয়ে কান্না মায়ের!

Corona Horror in Andhra: 'দয়া করে মেয়েটাকে বাঁচান', হাসপাতালের গেটে নিথর শিশুর দেহ নিয়ে কান্না মায়ের!

মর্মান্তিক ঘটনা

ভিতরে ঢুকতে না পেরে আকুল হয়ে কাঁদতে শুরু করেন শিশুটির বাবা-মা। কিন্তু সেই কান্না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কান পর্যন্ত গেল না, হাসপাতালের গেটের বাইরেই অ্যাম্বুল্যান্সেই মৃত্যু হল বছর দেড়েকের সরিথার।

  • Share this:

    মধ্যপ্রদেশ: করোনার কবলে পড়ে কত যে করুণ দৃশ্যের সাক্ষী হচ্ছে ভারত (Coronavirus in India)। দিকে-দিকে মৃত্যুমিছিল। অক্সিজেনের অভাবে কাতরাচ্ছে মানুষ। হাসপাতালে বেড নেই। প্রতিদিনই অসংখ্য মর্মান্তিক ছবি উঠে আসছে নানা প্রান্ত থেকে। অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনমেও যে চিত্র উঠে এল, তা রীতিমতো শিউড়ে ওঠার মতোই। করোনা আক্রান্ত দেড় বছরের শিশুকন্যাকে নিয়ে বাবা-মা গিয়েছিলেন বিশাখাপত্তনমের কিং জর্জ হাসপাতালে। ভিতরে ঢুকতে না পেরে আকুল হয়ে কাঁদতে শুরু করেন শিশুটির বাবা-মা। কিন্তু সেই কান্না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কান পর্যন্ত গেল না, হাসপাতালের গেটের বাইরেই অ্যাম্বুল্যান্সেই মৃত্যু হল বছর দেড়েকের সরিথার।

    হাসপাতালের বাইরে দাঁড়িয়ে শিশুটির বাবা-মা'কে কাঁদতে-কাঁদতে বলতে শোনা গিয়েছে, 'কেউ আমার মেয়েটাকে একটু বাঁচান। রাস্তায় ছেড়ে চলে গিয়েছে। দয়া করে বাঁচান।' কিন্তু মেলেনি সাহায্য। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, প্রায় দেড় ঘণ্টা মেয়েকে ওই হাসপাতালের এমার্জেন্সি ওয়ার্ডে ভর্তি করতে চেয়েও পারেননি বাবা-মা। শেষ পর্যন্ত হাসপাতালের গেটেই মৃত্যু হয় ছোট্ট বাচ্চাটির। এরপরই তাঁর আত্মীয়রা হাসপাতালে চড়াও হন, বিক্ষোভ দেখান। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, করোনার কারণে শিশুটির আগেই মৃত্যু হয়েছিল।

    শুধু অন্ধ্রে নয়, অমানবিক ছবি উঠে এসেছে বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশেও। ঘটনাস্থল উত্তরপ্রদেশের জৌনপুর। অমানিবক ঘটনার শেষ নেই যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে, বিরোধীদের অভিযোগ তেমনই। আর করোনা পরিস্থিতিতে সেখানে উঠে এল অত্যন্ত মর্মান্তিক দৃশ্য। উত্তরপ্রদেশের জৌনপুরে এক বৃদ্ধেকে বাধ্য করা হল করোনায় মৃত স্ত্রী'র দেহ সাইকেলে করে নিয়ে যেতে। বৃদ্ধের স্ত্রী করোনায় মৃত, তাই গ্রামে শেষকৃত্য করতে দিতে নারাজ গ্রামবাসীরা। তাই স্ত্রী'কে সাইকেলে করেই নিয়ে যেতে বলা হয়েছিল বৃদ্ধকে। আর তা করতে গিয়ে যে ছবি সামনে এসেছে, তা শিউড়ে ওঠার মতো।

    সাইকেলে মৃত স্ত্রী'কে নিয়ে যেতে গিয়েও শারীরিক দুর্বলতার কারণেই পড়ে যান বৃদ্ধ। একইসঙ্গে সাইকেলের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে যায় তাঁর স্ত্রী'র দেহও। আক্ষেপে, কষ্টে নতজানু হয়ে বসে থাকেন তিনি। করোনা বিধ্বস্ত ভারত যেন ক্রমেই অমানবিক হয়ে উঠছে। আতঙ্ক ভুলিয়ে দিচ্ছে মনুষ্যত্বকেও।

    Published by:Suman Biswas
    First published:
    0