Home /News /national /

UP Assembly Election 2022: এক সিদ্ধান্তেই 'এগিয়ে' BJP, অখিলেশের গলায় 'পারব না' সুর! বিষয়টা কী?

UP Assembly Election 2022: এক সিদ্ধান্তেই 'এগিয়ে' BJP, অখিলেশের গলায় 'পারব না' সুর! বিষয়টা কী?

.যুযুধান

.যুযুধান

UP Assembly Election 2022: অখিলেশ যাদবের সাফ বক্তব্য, ভার্চুয়াল প্রচারের ক্ষেত্রে বিজেপির মতো বড় দলের পরিকাঠামোকে হার মানানো সম্ভব নয়।

  • Share this:

    #লখনউ: শনিবারই উত্তরপ্রদেশ সহ পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের (Assembly Election 2022) দিনক্ষণ ঘোষণা করেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। ভোট ঘোষণা হলেও কোভিড আবহে একাধিক বিধিনিষেধ আরোপ করেছে কমিশন। সেই বিধিনিষেধের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হল, আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ওই পাঁচ রাজ্যে আপাতত কোনও রোড শো বা বাইক মিছিল করা যাবে না। সেক্ষেত্রে অনলাইনে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভোট প্রচারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কমিশনের তরফে। আর এরপরই এই নিয়ে কিছুটা বিরোধিতার সুর শোনা গেল সমাজবাদী পার্টি প্রধান তথা উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের (Akhilesh Yadav) গলায়।

    অখিলেশের সাফ বক্তব্য, ভার্চুয়াল প্রচারের ক্ষেত্রে বিজেপির মতো বড় দলের পরিকাঠামোকে হার মানানো সম্ভব নয়। প্রসঙ্গত, সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজেপি-র বাড়বাড়ন্ত নতুন কিছু নয়। তাঁদের আইটি সেল-এর 'তৎপরতাও' সর্বজনবিদিত। এই পরিস্থিতিতে অখিলেশের সাফ কথা, কমিশন আর্থিক ভাবে সাহায্যের ব্যবস্থা করে দিক, যাতে বিজেপি-কে টেক্কা দেওয়ার মতো অনলাইনে পরিকাঠামো গড়ে তুলতে পারে বাকি রাজনৈতিকগুলি।

    আরও পড়ুন: মন্দির খোলা নিয়ম মেনে, কিন্তু তারাপীঠে আগতদের জন্য বড় খবর! না জেনে যাবেন না...

    কী বলছেন অখিলেশ? উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, ''নির্বাচন কমিশনের উচিত রাজনৈতিক দলগুলিকে কিছু তহবিল দেওয়া। সেই তহবিল থেকেই অনলাইন প্রচারের পরিকাঠামোর জন্য খরচ করতে পারবে রাজনৈতিক দলগুলি। নাহলে বিজেপির পরিকাঠামোর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারব না আমরা। নির্বাচন কমিশন যেন তাই রাজনৈতিক দলগুলিকে সরকারের কাছ থেকে কিছু তহবিল পেতে সাহায্য করে।''

    আরও পড়ুন: 'আগেই বলেছিলাম...' BJP-র সাফল্যে আশাবাদী হলেও সতর্কতায় জোর দিলীপ ঘোষের

    কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পরিস্থিতি দ্রুত পরিবর্তনশীল। তাই আপাতত কয়েকদিনের জন্য় সিদ্ধান্ত অনলাইন ছাড়া সমস্ত রকম প্রচার বন্ধ রাখা হয়েছে, পরবর্তীতে অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কমিশনের পক্ষ থেকে সাংবাদিক বৈঠকে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে, কোভিড বিধি মেনে নির্বাচন করার বিষয়ে সমস্ত রকম ব্যবস্থা নেবে কমিশন। বাড়বে ভোটদানের সময়, বুথের সংখ্যাও। বুথে বুথে থাকবে প্রয়োজনীয় স্যানিটাইজার, থার্মাল গান থেকে শুরু করে সব কিছুই। সমস্ত নির্বাচনী কর্মীদের দুটি টিকা ও একটি বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে, কারণ তাঁরা প্রথম সারির করোনা যোদ্ধা হিসেবে বিবেচিত। আর এরই মধ্যে অখিলেশের দাবিতে নতুন করে আসরে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Akhilesh Yadav, Uttar Pradesh, Yogi Adityanath

    পরবর্তী খবর