চিন,পাকিস্তানের ঘুম উড়ল! ভারতীয় 'আকাশ' কিনতে তৈরি একাধিক দেশ

চিন,পাকিস্তানের ঘুম উড়ল! ভারতীয় 'আকাশ' কিনতে তৈরি একাধিক দেশ

photo source/firstpost

এই আকাশ মিসাইল কিনতে আগ্রহী বেশ কয়েকটি দেশ। নাম প্রকাশ না করা হলেও সূত্রের খবর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং আফ্রিকা মিলিয়ে প্রায় দশটি দেশ এই সিস্টেম কিনতে আগ্রহী।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে নতুন ইতিহাস রচনা মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে ভারত। এতদিন সৌদি আরবের পর পৃথিবীর দ্বিতীয় দেশ হিসেবে বিদেশ থেকে সবচেয়ে বেশি অস্ত্র আমদানি করার তালিকায় নাম ছিল ভারতের। কিন্তু এই বিদেশ নির্ভরতা কাটিয়ে উঠতে তৎপর কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। এখনও পুরোপুরি নির্ভরতা কাটিয়ে ওঠা না গেলেও, দ্রুত নিয়ম বদলের চেষ্টা করা হচ্ছে। আগেই ভারতীয় প্রযুক্তিতে তৈরি চতুর্থ জেনারেশনের ফাইটার জেট তেজাস এবং তার নতুন সংস্করণ উৎপাদনের জন্য কাজ চালাচ্ছে ভারত। লক্ষ্য এই জেট রফতানি করা। এবার আরও এক ধাপ এগোল ভারত। দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি আকাশ মিসাইল সিস্টেম রফতানি করার ব্যাপারে আর কোনও সমস্যা রইল না। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছে।

    প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে দেশকে 'আত্মনির্ভর' এবং 'মেক ইন ইন্ডিয়া' প্রকল্পকে জোরদার করতেই এই সিদ্ধান্ত। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং জানিয়েছেন এই আকাশ মিসাইল সিস্টেম আরও আধুনিক। বর্তমানে ভারতীয় বাহিনী যে মিসাইল ব্যবহার করে তার থেকে নতুন আকাশ মিসাইল সিস্টেমে কিছু আপগ্রেড করা হয়েছে। ফলে নিশানা আরও সঠিক এবং কুড়ি থেকে বেড়ে পঁচিশ কিলোমিটারের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার ক্ষমতা রাখে এই নতুন সিস্টেম। এই আকাশ মিসাইল কিনতে আগ্রহী বেশ কয়েকটি দেশ। নাম প্রকাশ না করা হলেও সূত্রের খবর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং আফ্রিকা মিলিয়ে প্রায় দশটি দেশ এই সিস্টেম কিনতে আগ্রহী। সেই সব দেশের প্রস্তাবে দ্রুত অনুমোদন দেওয়ার জন্য একটি কমিটি গড়া হয়েছে।

    ৯৬ শতাংশ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই মিসাইল বিভিন্ন দেশের সেনাবাহিনীকে শক্তিশালী করবে। বন্ধু দেশগুলিকে প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম বিক্রি করে ৫০০ কোটি ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। উল্লেখ্য গত আগস্ট মাসেই তিনি ঘোষণা করেছিলেন দেশীয় প্রতিরক্ষা ও উৎপাদন বাড়াতে ১০১টি আইটেম আমদানি নিষিদ্ধ করা হল। এর জন্য ডিআরডিও বড় ভূমিকা পালন করেছে। সংস্থাটির প্রধান সত্যেশ রেড্ডি জানিয়েছিলেন ভারত ক্ষেপণাস্ত্রের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ স্বনির্ভরতা অর্জন করতে চায়। বাহিনী যা চায়, তা মাথায় রেখেই ক্ষেপণাস্ত্র তৈরিতে অনেকটা পথ এগিয়েছে ভারত। তাই আকাশ মিসাইল রফতানির গ্রিন সিগন্যাল ভারতের আকাশে নতুন সূর্যোদয় বলাই যায়।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: