Home /News /national /
'Agnipath' Protests: অগ্নিপথ বিক্ষোভে উত্তপ্ত বিহার, ১২টি জেলায় বন্ধ ইন্টারনেট, মোবাইল, টেলিফোন পরিষেবা

'Agnipath' Protests: অগ্নিপথ বিক্ষোভে উত্তপ্ত বিহার, ১২টি জেলায় বন্ধ ইন্টারনেট, মোবাইল, টেলিফোন পরিষেবা

 পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিহারের ১২টি জেলায় ইন্টারনেট, মোবাইল ও টেলিফোন পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। অর্থাৎ যোগাযোগ ব্যবস্থা পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।

  • Share this:

    #বিহার: মোদি সরকারের অগ্নিপথ প্রকল্পের প্রতিবাদে অগ্নিগর্ভ বিহার। অগ্নিপথ প্রকল্পে চুক্তিভিত্তিক সেনা নিয়োগের বিরোধিতায় বৃহস্পতিবার থেকে দফায় দফায় অশান্তির খবর পাওয়া গিয়েছে বিহার থেকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিহারের ১২টি জেলায় ইন্টারনেট, মোবাইল ও টেলিফোন পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। অর্থাৎ যোগাযোগ ব্যবস্থা পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।

    বিহারের যে জেলাগুলিতে যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্পূর্ণরূপে ছিন্ন করে দেওযা হয়েছে সেগুলি হল কাইমুর, ভোজপুর, ঔরঙ্গাবাদ, রোহতাস, বক্সার, নওয়াদা, পশ্চিম চম্পারন, সমস্তিপুর, লক্ষীসরাই, বেগুসরাই, বৈশালী এবং সরান। আগামী ১৯ জুন পর্যন্ত এই সব জেলাগুলির ইন্টারনেট ও টেলিকম পরিষেবা সম্পূর্ণরূপে বন্ধ থাকবে।

    অগ্নিপথ নিয়োগ প্রকল্পের বিরোধিতায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ হলেও সর্বাধিক আঁচ পড়েছে বিহারে। একাধিক গাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়েছে। আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় ট্রেনে। আরা স্টেশনে ভাঙচুর, লুটের অভিযোগে ১৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গতকালের পর শুক্রবারও বিহারের পরিস্থিতি উত্তপ্ত । বিহিয়া স্টেশনে বিক্ষোভ চলে। স্টেশনের ইন-চার্জ ও এক সংবাদকর্মী জখম হয়েছেন বলে খবর। কুলহারিয়া স্টেশনও তছনছ করার অভিযোগ উঠেছে। সমস্তিপুরে একটি ট্রেনে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। বেগুসরাই স্টেশনে ইটবৃষ্টিরও অভিযোগ উঠেছে।

    শুক্রবার সকালে তেলেঙ্গানার সেকেন্দ্রাবাদ রেলস্টেশনে অগ্নিপথ নিয়োগ প্রকল্পের বিরোধিতায় ট্রেনে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। রাজ্যে সম্ভাব্য আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে মোবাইল ইন্টারনেট এবং এসএমএস পরিষেবা স্থগিত করেছে হরিয়ানা সরকার। বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী রেণু দেবী ‘অগ্নিপথ’ বিক্ষোভের নামে হিংসাত্মক ঘটনার জন্য বিরোধীদের দায়ী করেছেন। হরিয়ানার মন্ত্রী অনিল ভিজ জানান, “বিক্ষোভ করা একটি গণতান্ত্রিক অধিকার কিন্তু অগ্নিসংযোগ এবং সহিংসতা সহ্য করা হবে না। যারা সহিংসতায় জড়িত তাদের রেহাই দেওয়া হবে না৷”

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Agnipath

    পরবর্তী খবর