দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

আন্দোলনরত কৃষকদের পায়ের যত্নে ফুট মাসাজার বসল সিংঘু সীমান্তে

আন্দোলনরত কৃষকদের পায়ের যত্নে ফুট মাসাজার বসল সিংঘু সীমান্তে

শুধুই ফুট মাসাজার নয়, এর আগে খালসা এইড-এর তরফে শিবিরের কাছাকাছি বিশেষ করে মহিলাদের কথা ভেবে অস্থায়ী শৌচাগার (Toilet) বানিয়ে দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে দিন কয়েক আগেই তাঁদের উদ্যোগে সিংঘু সীমান্তে বসানো হয়েছে বৃহদাকার রুটি মেশিন (Roti Machine) যা ঘণ্টা পিছু অন্তত ২০০০টি রুটি তৈরি করে দিতে পারবে!

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সংসদে নতুন কৃষি বিল পাশ করানোর সময়ে দেশবাসীর, বিশেষ করে কৃষকদের মতামতের কোনও মূল্যই দেয়নি সরকার। তাই এ'বার কৃষকেরা তাঁদের অধিকার ছিনিয়ে নিতে জারি করেছেন আন্দোলন, গোটা দেশ তাঁদের পাশে।

সেই লক্ষ্যেই সম্প্রতি সিংঘু সীমান্ত (Singhu Border), যেখানে সাময়িক ভাবে আস্তানা গেড়েছেন কৃষকেরা (Farmers), সেখানে তাঁবুর মধ্যে বসানো হল ফুট মাসাজের মেশিন। খবর বলছে, আপাতত তাঁবুর মধ্যে ২৫টি মেশিন রাখা আছে। যে দিন এই মেশিনগুলো ইনস্টল করা হয়, সে দিনই প্রায় ৫০০ জন কৃষক এর পরিষেবা নিয়েছেন। যত্নটুকু পেয়ে তাঁরা বেজায় খুশি।

খালসা এইড (Khalsa Aid) নামের এক আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে দিল্লির নিকটবর্তী সিংঘু সীমান্তে এই ফুট মাসাজার মেশিন বসানো হয়েছে। ওই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ভারতীয় শাখার ম্যানেজিং ডিরেক্টর অমরপ্রীত জানিয়েছেন, কৃষকদের জন্য এটুকু করতে পেরে তাঁরা আদতে নিজেদের কৃতার্থ বোধ করছেন!

https://twitter.com/sanamwazir/status/1337342440911503360?s=20

এটা অস্বীকার করার কোনও জায়গাই নেই যে দেশের এই আন্দোলনরত কৃষকেরা সব রকম শারীরিক স্বাচ্ছন্দ্য উপেক্ষা করেই পড়ে রয়েছেন অস্থায়ী শিবিরে, চালিয়ে যাচ্ছেন আন্দোলন। তাঁদের সঙ্গে রয়েছেন পরিবারের মহিলা সদস্যেরাও। যতক্ষণ না সরকারের তরফ থেকে নতুন কৃষি বিল খারিজ করে দেওয়া হচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত এই আন্দোলন চলবে বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তাঁরা। এ ক্ষেত্রে তাঁদের ন্যূনতম সুযোগ-সুবিধা দেওয়া মানবাধিকার রক্ষার মধ্যেই পড়ে! কেন না, এমন অনেক কৃষক আছেন, যাঁরা দূর দূর থেকে হেঁটে এসে আন্দোলনের শরিক হয়ে উঠছেন। সে দিক থেকে দেখলে তাঁরা যাতে নির্বিঘ্নে আন্দোলন চালিয়ে যেতে পারেন, সেটা সুনিশ্চিত করার জন্য এই ফুট মাসাজের (Foot Massager) প্রয়োজনীয়তা ছিল বইকি!

তবে, শুধুই ফুট মাসাজার নয়, এর আগে খালসা এইড-এর তরফে শিবিরের কাছাকাছি বিশেষ করে মহিলাদের কথা ভেবে অস্থায়ী শৌচাগার (Toilet) বানিয়ে দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে দিন কয়েক আগেই তাঁদের উদ্যোগে সিংঘু সীমান্তে বসানো হয়েছে বৃহদাকার রুটি মেশিন (Roti Machine) যা ঘণ্টা পিছু অন্তত ২০০০টি রুটি তৈরি করে দিতে পারবে!

Published by: Rukmini Mazumder
First published: December 12, 2020, 5:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर