• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • দেশ
  • »
  • ADVOCATE MOHIT D RAM THE PANEL COUNSEL REPRESENTING THE ELECTION COMMISSION OF INDIA TENDERED HIS RESIGNATION ON FRIDAY SB

Election Commission: 'মূল্যবোধ মিলছে না', নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ইস্তফা কৌঁসুলির!

বিড়ম্বনা বাড়ল কমিশনের

নির্বাচন কমিশনকে বারবার নিশানা করে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বলেছিলেন, 'কমিশন সব করছে বিজেপির কথায়'। যদিও কমিশনের তরফে সেই দাবি কখনই মানা হয়নি। কিন্তু এবার কমিশনের ‘মূল্যবোধ’ নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিলেন মোহিত ডি রাম।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের (West Bengal Assembly Eekction 2021) আবহে বারবার প্রশ্ন উঠেছে নির্বাচন কমিশনের (Election Commission) নিরপেক্ষতা নিয়ে। ভোটের দফা থেকে গোটা ভোটপর্ব পরিচালনা, বঙ্গ ভোটের গোটা পর্বেই কমিশনের 'কাজ' নিয়ে বিস্তর প্রশ্ন উঠেছিল। নির্বাচন কমিশনকে বারবার নিশানা করে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বলেছিলেন, 'কমিশন সব করছে বিজেপির কথায়'। যদিও কমিশনের তরফে সেই দাবি কখনই মানা হয়নি। কিন্তু এবার কমিশনের ‘মূল্যবোধ’ নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিলেন মোহিত ডি রাম। কে মোহিত? এতদিন কমিশনের কৌঁসুলির দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন আইনজীবী মোহিত ডি রাম।

    কিন্তু সেই দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে নিজের মূল্যবোধের সঙ্গে আপোষ করতে হচ্ছে বলে চিঠি লিখে নির্বাচন কমিশনের কৌশলীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন মোহিত। চিঠিতে তিনি লিখেছেন, 'বর্তমানে কমিশন যে ভাবে কাজ করছে, তার সঙ্গে নিজের মূল্যবোধ মেলাতে পারছি না'

    তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, নির্বাচন কমিশনের হয়ে কৌশলীর দায়িত্ব মোহিত সামলাচ্ছিলেন ২০১৩ সাল থেকে। অর্থাৎ, মোদি সরকার কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার আগে থেকে। সুপ্রিম কোর্টে কমিশনের হয়ে বহু মামলায় প্রতিনিধিত্ব করেছেন মোহিত। এমনকী সুপ্রিম কোর্টে নির্বাচন কমিশনের যে প্যানেলেও অন্যতম প্রধান মুখ ছিলেন তিনি।

    শুক্রবার সেই মোহিত ডি রাম-ই নির্বাচন কমিশনের আইন বিভাগের পরিচালনকর্তার কাছে ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি। 'মূল্যবোধ' নিয়ে প্রশ্ন তুললেও কমিশনের কাজে সুযোগ পাওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মোহিত। সম্প্রতি করোনা আবহে ৫ রাজ্যে ভোট করানো নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট সহ দেশের বিভিন্ন হাইকোর্টের চূড়ান্ত সমালোচনার মুখে পড়েছে কমিশন। সেই সূত্রেই কমিশনের মামলায় আদালতের শুনানিতে 'নিয়ন্ত্রণের' আর্জি জানিয়েছিল তারা। কিন্তু ধোপে টেকেনি নির্বাচনের কমিশনের আপত্তি। শুনানি চলাকালীন আদালতের পর্যবেক্ষণ সম্প্রচার বা প্রকাশ করা থেকে সংবাদমাধ্যমকে বিরত রাখার কমিশনের আর্জি খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

    সবমিলিয়ে গোটা দেশেই নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা, বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠছিলই। কমিশনের গুরুত্বপূর্ণ কৌশলীর ইস্তফা তা আরও বাড়াল।

    Published by:Suman Biswas
    First published: