• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ACTIVIST STAN SWAMY ACCUSSED IN ELGAR PARISHAD CASE PASSES AWAY IN MUMBAI DMG

Stan Swamy: শেষ হল না জামিনের শুনানি, তার আগেই হাসপাতালে মৃত্যু সমাজকর্মী স্ট্যান স্বামীর

প্রয়াত সমাজকর্মী স্ট্যান স্বামী৷

গত বছর ৮ অক্টোবর ঝাড়খণ্ডের বাড়ি থেকে স্ট্যান স্বামীকে গ্রেফতার করেছিল এনআইএ৷ স্বামীর বিরুদ্ধে নকশাল এবং মাওবাদীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার অভিযোগ আনা হয়৷

  • Share this:

    #মুম্বাই: জামিনের আবেদনের শুনানি চলার মধ্যেই মৃত্যু হল সমাজকর্মী স্ট্যান স্বামীর৷ এলগার পরিষদ মামলায় ধৃত স্ট্যান স্বামীকে ইউএপিএ আইনে অভিযুক্ত করেছিল এনআইএ৷ এ দিন সকালেই স্বামীর জামিনের আবেদনের জরুরি শুনানির বম্বে হাইকোর্টে আর্জি জানান তাঁর আইনজীবী৷ কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই ৮৪ বছর বয়সি এই সমাজকর্মী এবং খ্রিস্টান যাজকের মৃত্যুর খবর এসে পৌঁছয় আদালতে৷ গত ৩০ মে থেকে বম্বে হাইকোর্টের নির্দেশে মুম্বাইয়ের হোলি ফ্যামিলি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি৷ শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় রবিবার থেকে তাঁকে ভেন্টিলেটরে রাখতে হয়৷

    ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পুণের কাছে কোড়েগাঁও- ভিমায় এলগার পরিষদ নামে একটি জমায়েতে অংশ নেন স্ট্যান স্বামী সহ বেশ কয়েকজন সমাজকর্মী৷ অভিযোগ, সেই সমাবেশ থেকেই উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখা হয়৷ যার জেরে এর পরের দিনই কোড়েগাঁও- ভিমা এলাকায় হিংসাত্মক ঘটনা ঘটে৷ যার শিকার হয়ে একজনের মৃত্যুও হয়৷

    পুলিশ অভিযোগ করে এই সমাবেশের আয়োজকদের সঙ্গে মাওবাদীদের যোগ ছিল৷ পরে এই মামলার তদন্তভার হাতে নেয় এনআইএ৷ গত বছর ৮ অক্টোবর ঝাড়খণ্ডের বাড়ি থেকে স্ট্যান স্বামীকে গ্রেফতার করেছিল এনআইএ৷ স্বামীর বিরুদ্ধে নকশাল এবং মাওবাদীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার অভিযোগ আনা হয়৷ স্বামী ছাড়াও এই ঘটনায় আরও বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল৷ তাঁদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধেই ইউএপিএ আইনে মামলা দায়ের করা হয়৷ স্বামীর তরফে অবশ্য তাঁর আইনজীবী আদালতে সওয়াল করতে গিয়ে বলেন, ইউএপিএ আইনে মামলা করে আসলে ধৃতদের জামিনের রাস্তা বন্ধ করার চেষ্টা করা হয়েছে৷ দেশের নাগরিকদের মুক্ত ভাবে বাঁচার যে সাংবিধানিক অধিকার রয়েছে, ইউএপিএ আইন তার পরিপন্থী বলেও নিজের আবেদনে আদালতে যুক্তি দিয়েছিলেন স্বামী৷

    স্ট্যান স্বামী সহ অন্য অভিযুক্তদের মুম্বাইয়ের কাছে তালোজা জেলে রাখা হয়েছিল৷ ওই জেলের ভিতরের অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তাঁর শারীরিক অবস্থার ক্রমাগত অবনতি হচ্ছে বলে মে মাসেই আদালতের কাছে নিজের আবেদনে জানিয়েছিলেন স্বামী৷ যদিও স্বামীর অসুস্থতার কোনও জোরালো প্রমাণ নেই বলে দাবি করে তাঁর জামিনের আর্জির বিরোধিতা করে আদালতে হলফনামা জমা দেয় এনআইএ৷

    তদন্তে নেমে এনআইএ অভিযোগ করে, স্ট্যান স্বামী সহ এলগার পরিষদ সমাবেশের আয়োজকদের সঙ্গে নিষিদ্ধ সিপিআই মাওবাদীদের শীর্ষ নেতাদের যোগাযোগ ছিল৷ মাওবাদীদের আদর্শ ছড়িয়ে দিয়ে বেআইনি কার্যকলাপ সংগঠনের উদ্দেশ্যেই এই যোগাযোগ রাখা হচ্ছিল বলে দাবি করেছে এনআইএ৷

    স্ট্যান স্বামী ছাড়াও একাধিক নামকরা সমাজকর্মী, আইনজীবী, বিদ্বজ্জনকে এই মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছিল৷ তাঁদের মধ্যে স্বামীই ছিলেন প্রবীণতম৷ গ্রেফতারির সময়ই পার্কিন্সনস ডিসিজ সহ একাধিক শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: