Abhishek Banerjee in Tripura: 'এবার ত্রিপুরা', ২৩-এর লক্ষ্যে পা রাখছেন অভিষেক! সফর ট্রেন্ডিং সকাল থেকেই

সরগরম ত্রিপুরা

Abhishek Banerjee in Tripura: শনি ও রবিবার ত্রিপুরায় কঠোর করোনা বিধি-নিষেধ জারি থাকার কারণে সফর পিছিয়ে দিতে হয়েছিল অভিষেক বন্দোপাধ্যায়কে। অবশেষে আজ তিনি আসছেন আগরতলায়।

  • Share this:

#ত্রিপুরা: #EBARTRIPURA হ্যাশট্যাগকে সামনে রেখেই আজ থেকে ত্রিপুরায় ২০২৩ সালের বিধানসভা ভোটের জন্যে ঝাঁপাতে শুরু করল তৃণমূল কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের ছবি দিয়ে পোস্টার বানিয়ে প্রচার শুরু করে দিল ত্রিপুরা তৃণমূল কংগ্রেস। অনেক টালবাহানা, বিধিনিষেধকে দূরে সরিয়ে রেখে অবশেষে আজ দুপুরে ত্রিপুরায় পা রাখতে চলেছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। গত শনি ও রবিবার ত্রিপুরায় কঠোর করোনা বিধি-নিষেধ জারি থাকার কারণে সফর পিছিয়ে দিতে হয়েছিল অভিষেক বন্দোপাধ্যায়কে। অবশেষে আজ তিনি আসছেন আগরতলায়।

তৃণমূল সূত্রে খবর, আগরতলা বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে অভিষেক উড়ে যাবেন বিখ্যাত মাথাবাড়ি মন্দিরে। কথিত আছে, ত্রিপুরার যে কোনও ভালো কাজ শুরু হয় মাথাবাড়িতে ত্রিপুরেশ্বরী দেবীর আশীর্বাদ নিয়ে। তাই এই রাজ্যে জাঁকিয়ে বসার আগে তৃণমূলও নতুন করে আবার যাত্রা শুরু করছে মাথাবাড়ি থেকেই। অবশ্য উদয়পুর, মাথাবাড়ি অঞ্চলে ইতিমধ্যেই একাধিক পরিবার যোগ দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসে। তৃণমূলের ত্রিপুরার নেতারা জানিয়েছেন, আজ দুপুর ১ঃ৩০ মিনিট নাগাদ স্থানীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। নেবেন জেলা ভিত্তিক রিপোর্ট। সেই অনুযায়ী আগামী দিনে এগোনোর পরবর্তী নির্দেশ দেবেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক।সূত্রের খবর, আই প্যাক কর্মীদের ত্রিপুরায় হোটেলবন্দি করে রাখার পর তৃণমূলের তরফে আর কোনও ঝুঁকি নিতে রাজি নন অভিষেক। তাই দলীয় নেতাকর্মীদের কোভিড প্রোটোকল মেনে চলারই নির্দেশ ইতিমধ্যেই দিয়েছেন তিনি। ত্রিপুরার সংগঠন পাকাপোক্ত করার জন্যে নতুন মুখও তুলে আনতে পারেন তিনি। তৃতীয় বার বাংলায় ক্ষমতায় আসা ও তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদে বসার পরই অভিষেক জানিয়ে দিয়েছিলেন, তৃণমূল ভিনরাজ্যে যেখানেই যাবে, শুধুমাত্র ভোট শতাংশ কাটার জন্য যাবে না। বরং সরকার গড়া বা সরকার গঠনে বড় ভূমিকা নিতেই যাবে তাঁরা। কিন্তু ত্রিপুরায় এখন থেকেই ক্ষমতা দখলের লড়াই শুরু করছে তৃণমূল।

সেই সূত্রেই অভিষেকের আজকের এই ঝটিকা সফর বিশেষ ভাবে ইঙ্গিতবাহী।বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অবশ্য কটাক্ষ করেছেন, 'ত্রিপুরায় তৃণমূলের কিছুই নেই। বাংলার বাইরে তৃণমূলের কোনও অস্তিত্বই নেই' বলে। তবে গত কয়েকদিন ধরে ত্রিপুরায় যেভাবে আঁটঘাঁট বেঁধে তৃণমূল নামছে, তাতে রাজনৈতিক মহলের মতে 'খেলা' যে শুরু হয়ে গিয়েছে, তা বলাই বাহুল্য। বিপ্লব দেবের রাজ্যে ক্রমেই কোমর বেধে নামছে তৃণমূল। আর তাতে ঘৃতাহুতি দিয়েছে প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা আইপ্যাকের কর্মীদের ত্রিপুরা সরকারের হাউজ অ্যারেস্ট করে রাখার ঘটনা। আইপ্যাকের কর্মীদের মুক্তির দাবিতে প্রতিবাদ করতে গিয়ে ত্রিপুরার বিভিন্ন জায়গায় গ্রেফতার করা হয়েছে তৃণমূলের অনেক নেতা-কর্মীকে। আর এমনই এক পরিস্থিতিতে আজ ত্রিপুরায় পা রাখছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই একাধিক কংগ্রেস নেতা যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে। সূত্রের খবর, আজ যোগ দিতে পারেন বেশ কয়েকজন।

Published by:Suman Biswas
First published: