Abhishek Banerjee : এলেন-দেখলেন-জয় করলেন! ত্রিপুরায় 'ক্যাপ্টেন' অভিষেকের ক্যারিশমায় মুগ্ধ টিম TMC

সমন্বয়ের কাণ্ডারি অভিষেক

Abhishek Banerjee : শনিবার দলের যুবনেতাদের ওপর হামলার পরেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ছুটে যাওয়ার। দলের যুবনেতাদের পাশে গিয়ে দাঁড়ানোর। রবিবার দিন শেষে যেন তারই প্রমাণ দিলেন তৃণমূলের 'সেনাপতি'।

  • Share this:

#ত্রিপুরা : ঘটনার ঘনঘটা ত্রিপুরায় (Tripura)। গত ২৪ ঘণ্টায় ঘটে গিয়েছে একের পর এক নাটকীয় পর্ব। যার শেষ অঙ্কে প্রাথমিক যুদ্ধজয়ের আত্মবিশ্বাসে ভরপুর এক জাতীয় নেতাকে দেখল গোটা দেশ। তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) নতুন রূপ দেখল তাঁর দলও। শনিবার দলের যুবনেতাদের ওপর হামলার পরেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ছুটে যাওয়ার। দলের যুবনেতাদের পাশে গিয়ে দাঁড়ানোর। রবিবার দিন শেষে যেন তারই প্রমাণ দিলেন তৃণমূলের 'সেনাপতি'। আর ম্যাজিকম্যানের(Abhishek Banerjee) ম্যাজিকে হাসির ঝলক খেলে গেল দলের ছোট-বড় নেতাদের মুখে।

ঘটনাপঞ্জি ক্রমশ বদলাতে থাকে রবিবার সকাল থেকে। মহামারী আইন ভঙ্গের মামলায় গ্রেফতার করা হয় ১৪ জন 'আক্রান্ত' তৃণমূল নেতাকে। ত্রিপুরাতে পা রেখেই তাই অভিষেক ছুটে যান খোয়াই থানায়। সঙ্গী ছিলেন ব্রাত্য বসু, দোলা রায়রা। সেখানে চলে জামিনের দাবিতে ধরনা, বাকবিতণ্ডা। দিনশেষে আদালত থেকে জামিন পান দলের যুবনেতারা। তাঁদের নিয়েই কোর্ট চত্বর ত্যাগ করেন অভিষেক।

আদালত চত্বর ত্যাগ করার আগে অভিষেক বলেন, "আগামী দেড় বছর যত পরিশ্রম করতে হয় করব। বিপ্লব দেবের শেষের শুরু হয়ে গিয়েছে। ত্রিপুরা বিজেপির পৈত্রিক সম্পত্তি নয়। ত্রিপুরা ত্রিপুরার মানুষের। দেড় বছর পর মানুষই উৎখাত করবে বিজেপিকে।"

দেবাংশু-সুদীপ -সহ ১৪ যুবনেতা গ্রেফতার ও তাঁদের জামিনের মামলার শুনানি প্রসঙ্গে কুনাল ঘোষ বলেন, তেলিয়ামুড়া থানার মামলায় মিথ্যা অভিযোগে ধৃতদের জামিন মঞ্জুর হয়েছে। আমবাসা থানার মামলা মঞ্জুর না করে স্থগিত রেখেছে আদালত। ওই মামলার শুনানি পরে হবে বলে জানিয়েছে আদালত।

কুনাল ঘোষ রবিবার ত্রিপুরার গোটা ঘটনা পরম্পরা ও দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বের প্রশংসায় বলেন 'ক্যাপ্টেন আজ যে নেতৃত্ব দিলেন, তা অভাবনীয়'। একটি ট্যুইট বার্তায় কুনাল ঘোষ লেখেন 'দিনভর থানায় বসে সব সমন্বয় করার পর খোয়াই আদালতে এলেন অভিষেক।'

তবে ত্রিপুরা নিয়ে খেলা সবে শুরু এমনি ইঙ্গিত দিচ্ছে ঘাসফুল শিবির। সূত্রের খবর এবার ত্রিপুরা নিয়েই দিল্লিতে ঝড় তুলতে চলেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক রবিবার বলেন, তাঁদের দলের নেতা-কর্মীদের উপর হামলা, গ্রেফতার ও থানায় এনে হেনস্থার প্রতিবাদে সোমবার সংসদ ভবন চত্বরে বিক্ষোভ দেখাবেন তৃণমূল সাংসদরা। সোমবার থেকেই সংসদে গান্ধি মূর্তির পাদদেশে ধরনায় বসতে চলেছে তৃণমূল। ত্রিপুরা থেকে দলের সমস্ত সাংসদকে এমনই নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। জানা গিয়েছে, সোমবার সংসদের ধরনায় উপস্থিত থাকবেন অভিষেক নিজেও।

তবে গোটা ঘটনায় এক অন্য অভিষেকের উত্থান দেখছে দেশের রাজনৈতিক মহল। যে অভিষেক একদিন 'তৃণমূলের সাম্রাজ্য বিস্তারের' চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন সেই অভিষেকই যেন জ্বলে উঠেছেন রবিবার বার বার। কখনও খোয়াই থানায়, কখনও আদালত চত্বরে।

আবির ঘোষাল

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: