• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ABHISHEK BANERJEE PRESS CONFERENCE IN TRIPURA AFTER VISITING TRIPURESWARI TEMPLE SANJ

Abhishek Banerjee : অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের চ্যালেঞ্জ, কাউন্টডাউন শুরু আজই! দেড় বছরে ত্রিপুরায় উন্নয়নের সরকার গড়ে দেখাব!

চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন অভিষেক Photo : Representative

Abhishek Banerjee : অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদে আসীন হয়ে এদিনই প্রথম ভিনরাজ্যে পা রাখলেন । কিন্তু ত্রিপুরায় (TMC in Tripura) তাঁর পা রাখার পর থেকেই শুরু হয় চরম বিরোধিতা।

  • Share this:

    #কলকাতা : "আজ পা দিলাম। দেড় বছরের মধ্যে এই ত্রিপুরাতেই উন্নয়নের সরকার গড়ে দেখিয়ে দেব, কথা দিলাম।" ঠিক এই ভাষাতেই সাংবাদিক বৈঠকে সোচ্চার হলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। মা ত্রিপুরেশ্বরীর মন্দিরে পুজো দেওয়ার পরে ত্রিপুরায় সোমবার দুপুরে সাংবাদিক বৈঠক করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ব্রাত্য বসুরা। সেখানেই ত্রিপুরার বিজেপি সরকারকে দ্বর্থহীন ভাষায় আক্রমণ করেন অভিষেক।

    দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদে আসীন হয়ে এদিনই প্রথম ভিনরাজ্যে পা রাখলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। কিন্তু ত্রিপুরায় তাঁর পা রাখার পর থেকেই শুরু হয় চরম বিরোধিতা। সাংবাদিক বৈঠকে অভিষেক বলেন, মায়ের কাছে পুজো দিয়ে ত্রিপুরা কর্মসূচি করতে চেয়েছিলাম। শুধু ত্রিপুরায় নয়, সারা ভারতবর্ষে প্রসিদ্ধ মা ত্রিপুরেশ্বরী। সেই মায়ের পুজো দিতে পর্যন্ত বাধা দেওয়া হয়েছে আমাকে। বিজেপি হিন্দু ধর্মের ধারক ও বাহক বলে নিজেদের দাবি করে৷ সেই বিজেপি আমায় পুজো দিতে বাধা দেওয়ার কোনও কসুর ছাড়েনি। ১০০ মিটার অন্তর অন্তর পথ অবরোধ করা হয়েছে। লাঠি, লোহার রড দিয়ে মারা হয়েছে গাড়িতে। সবরকম চেষ্টা করা হয়েছে যাতে মায়ের দর্শন করতে না পারি। কিন্তু, তৃণমূলকে যত তাতাবে, তত জেদ বাড়বে।লোহার মত শক্ত আমাদের দল। আমাদের সিপিএম পায়নি।"

    অভিষেক আরও বলেন, "আজ থেকে পুজো দিয়ে ত্রিপুরায় পথ চলা শুরু করলাম। ত্রিপুরায় এসে, অতিথি দেব ভবঃ নামে বিজেপি সরকার যা যা করেছেন তার ভিডিও পোস্ট করেছি। আপনারা সে সব দেখেছেন। তবে দায়িত্ব নিয়ে বলছি, আমাদের এসব যত করবেন, তত সূর্যোদয় ঘটবে। ত্রিপুরার মানুষকে স্বাধীন করব। আজকের তারিখ লিখে রাখুন। আগামী ১.৫ বছরে আমাদের সরকার প্রতিষ্ঠা করে উন্নয়ন পৌছে দেব ত্রিপুরায়। আমাদের রাজ্য দুয়ারে সরকার। এখানে হচ্ছে দুয়ারে গুন্ডা। এই ত্রিপুরার হৃত গৌরব পুনরুদ্ধার করা হবে। বিপ্লব বাবুর ক্ষমতা থাকলে আটকে দেখাক।"

    সরাসরি বিপ্লব দেবকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে অভিষেক বলেন, "চ্যালেঞ্জ দিয়ে গেলাম। আপনার দিল্লির নেতা যতবার আসবে। তার চেয়ে বেশি বার আসব। এই মাসে দুবার। আগামী মাসে ৩ বার আসব। আমাকে দায়িত্ব দিয়েছে দল। আমি বুঝে নেব। আমাদের যদি ক্ষমতা না থাকে তাহলে এত উদ্বিগ্ন কেন? ১৫ দিন সময় দিলাম বাঁশ, লাঠি, বন্দুক জোগাড় করে রাখুন। কিন্তু আপনাদের ক্ষমতা নেই।

    সাংবাদিক বৈঠক থেকে এদিন বিরোধী শিবিরের উদ্দেশ্যেও বার্তা দেন অভিষেক। তিনি বলেন, "বাম-কংগ্রেস সহ সকলকে অনুরোধ করব, যদি হৃত গৌরব ফেরাতে চান ত্রিপুরার, তাহলে একসাথে লড়াই করব। একদিনে সিদ্ধান্ত নিতে হবে না। সময় নিন। বিরোধী নেই বলে বিজেপি আপনাদের ওপর অত্যাচার করছে। আজ থেকে সেই অত্যাচারে ইতি টানা শুরু হল। আজ থেকে এখানে বাইক বাহিনীর খেলা শেষ। সমাজবিরোধীদের খেলা শেষ। মানুষের খেলা শুরু।"

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: