দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে কেজরিওয়ালকে! দাবি আপের

গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে কেজরিওয়ালকে! দাবি আপের

আপের তরফে দাবি করা হয়েছে যে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির চারপাশে ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: গৃহবন্দি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ! সোমবার সিংঘু সীমানায় কৃষকদের সঙ্গে দেখা করে কৃষক আন্দোলনে সমর্থন জানিয়েছিলেন দিল্লির মুখমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ৷ এরপর থেকেই কেজরিওয়ালকে গৃহবন্দি করে রেখেছে দিল্লি পুলিশ বলে ট্যুইট করে জানিয়েছে আপ ৷ কাউকেই তাঁর বাড়িতে প্রবেশ করতে বা বেরোতে দেওয়া হচ্ছে না বলে জানানো হয়েছে ৷

আপের তরফে দাবি করা হয়েছে যে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির চারপাশে ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে ৷ গৃহমন্ত্রকের নির্দেশে কেজরিওয়ালকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ জানানো হয়েছে আপের তরফে ৷ অন্যদিকে অবশ্য মুখ্যমন্ত্রীকে গৃহবন্দি করে রাখার বিষয়টি খারিজ করে দিয়েছে দিল্লি পুলিশ ৷

টানা ১২ দিন ধরে কৃষক সংগঠনগুলি তাঁদের বিক্ষোভ জারি রেখেছে কেন্দ্র সরকারের আনা ৩ টি কৃষি আইনের বিরুদ্ধে। দিল্লি সরকারের তরফ থেকে কৃষকদের জন্য সঠিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখতেই সোমবার সিংঘু বর্ডারে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী।

কেজরিওয়াল-ই দিল্লির প্রথম এমন মুখ্যমন্ত্রী, যিনি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে চলা বিক্ষোভের পরিদর্শনে গেলেন। তিনি বলেন, “কৃষকদের সব রকম দাবিকে আমি সমর্থন করি। ওঁদের এই বিক্ষোভের পিছনে যথেষ্ট কারণ রয়েছে। আমি এবং আমাদের দলের নেতারা প্রথম থেকেই কৃষক নেতাদের পাশে আছি। আন্দোলনের শুরুতে দিল্লি পুলিশের তরফে, ৯টি স্টেডিয়ামকে জেলে রূপান্তরিত করার জন্য আমাদের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু চাপের মুখেও আমি অনুমতি দিইনি।”তিনি আরও বলেন, “আমাদের দলীয় নেতারা এবং আইনসভার সদস্যরা প্রথম থেকেই আন্দোলনকারীদের জন্য স্বেচ্ছাসেবক হয়ে কাজ করছেন। আমিও এখানে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আসিনি, বরং স্বেচ্ছাসেবক হিসেবেই এসেছি। কৃষকরা খুব বড় সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে এবং আমাদের উচিৎ তাঁদের পাশে দাঁড়ানো। আগামী ৮ ডিসেম্বরের ভারত বনধ-কে আমরা সমর্থন করি।”

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: December 8, 2020, 11:17 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर