এবার ঠাকুর দেখতেও লাগবে আধার কার্ড !

এবার ঠাকুর দেখতেও লাগবে আধার কার্ড !

তীর্থে যাওয়ার ক্ষেত্রে সরকারের তরফে ২০ হাজার টাকা ভর্তুকি দেওয়া হয়ে থাকে ৷ সেই টাকার যাতে অপব্যবহার না হয় সেই জন্যেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ৷

  • Share this:

#বেঙ্গালুরু: জন্ম-পরিচিতি-সম্পত্তি ও ব্যাঙ্ক। এর আগে সমস্ত কিছুতেই আধারকার্ড বাধ্যতামূলক করে কেন্দ্রীয় সরকার। ভুয়ো পরিচয় রুখতে কোনও ব্যক্তির স্বতন্ত্র একটি নম্বর দেওয়া হয় কার্ডের মাধ্যমে। এই নম্বরকে একটি ব্যক্তির বার্থ সার্টিফিকেট, সম্পত্তি, ব্যাঙ্ক ডিটেলস বা অন্যান্য পরিচয়ের সঙ্গে যুক্ত করা বাধ্যতামূলক করা হয়। শুধু তাই নয় ৷ এবার থেকে তীর্থযাত্রার ক্ষেত্রেও বাধ্যতামূলক করা হল আধার কার্ডকে ৷ সম্প্রতি এমনই নিয়ম জারি করেছে কর্ণাটক সরকার ৷ নতুন নিয়ম অনুযায়ী, বদ্রিনাথ, কেদারনাথ, গঙ্গোত্রী ও যমুনোত্রীতে তীর্থে যাওয়ার ক্ষেত্রে আধার নম্বর থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে ৷

তীর্থে যাওয়ার ক্ষেত্রে সরকারের তরফে ২০ হাজার টাকা ভর্তুকি দেওয়া হয়ে থাকে ৷ সেই টাকার যাতে অপব্যবহার না হয় সেই জন্যেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ৷ সরকারের তরফে জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, যে সকল পুর্ণ্যার্থীরা ভর্তুকি নিতে ইচ্ছুক তাদের নিজেদের বাসস্থানের প্রমাণ হিসেবে আধার কার্ড জমা দিতে হবে ৷

মুজরাই বিভাগের এক আধিকারিক জানিয়েছেন

প্রতিবছর রাজ্যের প্রায় ১০০০ থেকে ১৫০০ বাসিন্দাকে তীর্থে যাওয়ার জন্য ভর্তুকি দেওয়া হয়ে থাকে চারধাম যাত্রা থেকে ৷ তবে এই বছর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ এর মূল কারণ হচ্ছে ট্রাভেল এজেন্টরা মানুষরা এই ভর্তুকি নেওয়ার উসকানোর চেষ্টা করছে ৷ ফেল মানুষের মধ্যে ভুয়ো পরিচয় দেওয়ার প্রবণতা বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ তাই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ৷

২০১৪ সালে সিদ্দারামাইয়া সরকার এই প্রকল্প চালু করেছিল ৷

Loading...

First published: 02:24:50 PM Sep 01, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर